আন্দোলনের ঘোষণা ড্রাগন গ্রুপের শ্রমিকদের

আন্দোলনের ঘোষণা ড্রাগন গ্রুপের শ্রমিকদের

মালিক পক্ষের সঙ্গে সমঝোতা আলোচনা ভেস্তে যাওয়ায় পাওনা আদায়ের দাবিতে সর্বাত্মক আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছে ড্রাগন গ্রুপের শ্রমিকরা।

বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৩টায় শ্রম মন্ত্রণালয়ের ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট কমিটির ডাকে ড্রাগন গ্রুপের শ্রমিকদের সংকট নিরসনে ত্রিপক্ষীয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। মালিকপক্ষ সভা বয়কট করায় সমঝোতা আলোচনা ভেস্তে যায় বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, শ্রমিক-কর্মচারীদের প্রভিডেন্ট ফান্ড, সার্ভিস বেনিফিট, অর্জিত ছুটির টাকাসহ সকল আইনানুগ পাওনা পরিশোধ করার দাবিতে আন্দোলনরত ড্রাগন গ্রুপের দুটি কারখানার শ্রমিকরা আগামীকাল বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামন থেকে বিক্ষোভ মিছিল করে শ্রম ভবনে সমাবেশ কর্মসূচি পালন করবে। সেখান থেকে আন্দোলনের পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষিত হবে।

শ্রম মন্ত্রণালয়ের ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট কমিটির সভাপতি ও শ্রম অধিদপ্তরের পরিচালক আমিনুল হক-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভাটি কোনো সুনির্দিষ্ট সিদ্ধান্ত ছাড়া শেষ হওয়ার পর বিকাল সাড়ে ৫টায় মুক্তিভবনে ড্রাগন গ্রুপ শ্রমিকদের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ড্রাগন গ্রুপ শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সভাপতি অ্যাড. মন্টু ঘোষ, জাতীয় শ্রমিক জোট বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক নাঈমুল আহসান জুয়েল, গার্মেন্ট টিইউসি’র সাধারণ সম্পাদক জলি তালুকদার, আন্তর্জাতিক সম্পাদক মঞ্জুর মঈন, জাতীয় শ্রমিক জোট বাংলাদেশের আইন বিষয়ক সম্পাদক আমির হামজা খান প্রমুখ।

সাধারণ সভায় শ্রমিকদের দাবি আদায়ে কঠোর আন্দোলনের কোনো বিকল্প অবশিষ্ট নেই মর্মে সকলেই একমত হন। যার প্রেক্ষিতে দেশের সকল শিল্পাঞ্চলে কর্মসূচি ঘোষণাসহ আন্দোলন জোরদার করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় বলে জানানো হয়েছে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে।