৯ নভেম্বর দেশব্যাপী ‘গণদাবি দিবস’ পালনের ডাক সিপিবির

দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ, জাতীয় ন্যূনতম মজুরি ২০ হাজার টাকা নির্ধারণ, ঘুষ-দুর্নীতি-লুটপাট বন্ধ, ভোটাধিকার-গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা, সাম্প্রদায়িকতা নির্মূল, দুঃশাসনের অবসান, বিকল্প গড়ার দাবিতে আগামী ৯ নভেম্বর, মঙ্গলবার দেশব্যাপী ‘গণদাবি দিবস’ এর ডাক দিয়েছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)।

গতকাল (২৯ অক্টোবর) শুক্রবার পার্টির সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমের সভাপতিত্বে তিন দিনব্যাপী কেন্দ্রীয় কমিটির সভার শুরুর দিনে এ আহ্বান জানান হয়। সাধারণ সম্পাদক কমরেড মোহাম্মদ শাহ আলম সভা পরিচালনা করেন।

সিপিবি’র এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

প্রসঙ্গত, প্রসঙ্গত, কেন্দ্রীয় কমিটির সভা এখনও চলমান। প্রথম দিনের সভায় এই সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

‘গণদাবি দিবস’ এর আহ্বান জানিয়ে কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, দ্রব্যমূল্যের পাগলা ঘোড়া জনজীবনকে পদদলিত করে সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস তুলে দিয়েছে। দ্রব্যমূল্যের চাপে মানুষের জীবন দুবির্ষহ হয়ে উঠেছে। জীবনযাত্রার ব্যয়ের সাথে মজুরির সামঞ্জস্যতা বিধানের জন্য ন্যূনতম জাতীয় মজুরি বিশ হাজার টাকা করতে হবে। ষড়যন্ত্রকারীদের সৃষ্ট ‘সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস’ দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিকে ছিন্ন ভিন্ন করে দিচ্ছে। সরকারের নিষ্ক্রিয়তা, নিষ্পৃহতা ও নিয়ন্ত্রণহীনতায় সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস হিন্দু সম্প্রদায়সহ দেশের অসম্প্রদায়িক মানুষের মনে ক্ষোভের সঞ্চার করেছে। ঘুষ-দুর্নীতি-লুটপাট যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি মাত্রায় সংঘটিত হচ্ছে।

কমরেড সেলিম বলেন, জনগণের এ সকল দাবি বাস্তবায়নের জন্য সিন্দাবাদের ভুতের মতো ঘাড়ে চেপে বসে থাকা আওয়ামী দুঃশাসনের জগদ্দল পাথর অপসারণ করতে হবে। বিকল্প শক্তির উত্থানের মাধ্যমে বিকল্প গড়ে দুঃশাসনকে পরাজিত করতে হবে।

‘গণদাবি দিবস’ সফল করার জন্য কমরেড সেলিম, পার্টির প্রতিটি প্রাথমিক শাখাকে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সভা-সমাবেশে, মিছিল, গণডেপুটেশন, বিক্ষোভ প্রভৃতি কর্মসূচি পালনের আহ্বান জানান। তিনি দেশবাসীকে আওয়ামী দুঃশাসন হাটানোর সংগ্রামে কমিউনিস্ট পার্টির কর্মীদের সাথে রাজপথে নেমে আসার ডাক দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.