৮ ডিসেম্বর কৃষকদের ডাকে ভারতে ‘বন্ধ’, বাম দলগুলোর সমর্থন

কৃষকদের আন্দোলনে সারা ভারতজুড়ে চলছে বিক্ষোভের ঝড়। মোদি সরকার বারবার আলোচনা করে সমঝোতায় পৌঁছাতে চাইলেও কৃষকরা দাবিতে অনঢ়।

এবার আগামী ৮ ডিসেম্বর, মঙ্গলবার সারা ভারত জুড়ে ‘বন্‌ধ’ এর ডাক দিলেন আন্দোলনকারী কৃষকরা।

বন্‌ধ চলাকালীন সমস্ত জাতীয় সড়ক এবং টোলপ্লাজাগুলি অবরোধ করা হবে বলে জানিয়েছে ভারতীয় কিসান ইউনিয়ন।

কৃষকদের দাবি, কৃষি আইন সম্পূর্ণ ভাবে প্রত্যাহার করতে হবে। আর একারণেই ৮ ডিসেম্বর ভারত বন্‌ধের ডাক দেওয়া হয়েছে। আরও অনেক মানুষ তাদের এই আন্দোলনে যোগ দেবেন বলে তাদের ধারণা।

এদিকে গতকাল ৫ ডিসেম্বর দেশজুড়ে প্রধানমন্ত্রী মোদীর কুশপুত্তলিকা দাহ করার কর্মসূচি পালন করেছে কৃষকরা।

প্রসঙ্গত, গত দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন পঞ্জাব ও হরিয়ানার কৃষকরা। সপ্তাহখানেক আগে রাজধানীতে আন্দোলন টেনে আনেন তাঁরা। উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড-সহ অন্যান্য রাজ্যের কৃষকরাও তাতে যোগ দেন। দিল্লি পুলিশ সীমানা আটকে দেওয়ায় এই মুহূর্তে দিল্লি-পঞ্জাব এবং দিল্লি-হরিয়ানা সীমানায় হাজার হাজার কৃষক আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। 

অল ইন্ডিয়া কিসান সভার সাধারণ সম্পাদক হান্নান মোল্লার কথায়, ‘‘এই আন্দোলন এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে আমাদের। সরকারকে কৃষি আইন প্রত্যাহার করতেই হবে”।

ইতোমধ্যেই নয়া কৃষি আইনের বিরুদ্ধে সারা ভারতজুড়ে কৃষক সংগঠনগুলির পক্ষ থেকে যে ব্যাপক বিক্ষোভ প্রদর্শন চলছে তার প্রতি সে দেশের বাম শক্তিগুলি সংহতি এবং সমর্থন জানিয়েছে।

কৃষক খেতমজুর সংগঠনের এই ভারত বন্‌ধের কর্মসূচিকে সর্বভারতীয় ৫টি বামপন্থী দলের পক্ষ থেকে সমর্থন জানানো হয়েছে এবং দেশের সমস্ত রাজনৈতিক দল ও শক্তির কাছে ৮ ডিসেম্বরের ধর্মঘটকে সমর্থন করতে আবেদন জানিয়েছে।

এছাড়াও পশ্চিমবঙ্গের ১৬টি বামপন্থী ও সহযোগী দল পশ্চিমবঙ্গে ৮ ডিসেম্বর সাধারণ হরতাল ধর্মঘটকে সফল করতে জেলায় জেলায় জরুরি ভিত্তিতে প্রস্তুতি নিতে আবেদন করছে। দিল্লিতে সংগঠিত কৃষক খেতমজুর আন্দোলন এক অভূতপূর্ব ঐতিহাসিক আন্দোলনে পরিণত হয়েছে। ১৬টি বামপন্থী ও সহযোগী দলের পক্ষ থেকে পশ্চিমবঙ্গের জনগণের কাছে দেশের অন্নদাতাদের আন্দোলন সংগ্রামকে সাফল্যমণ্ডিত করতে আবেদন করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

গতকাল শনিবার ১৬ দলের পক্ষ থেকে বিমান বসু একটি বিবৃতি দিয়ে বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গে ৮ডিসেম্বর সাধারণ হরতাল ধর্মঘটকে সফল করতে জেলায় জেলায় জরুরি ভিত্তিতে প্রস্তুতি নিতে আবেদন করছে।

এদিন সিপিআই(এম)’র রাজ্য সম্পাদক সূর্য মিশ্র এবং প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরিও ৮ ডিসেম্বরের ধর্মঘটকে সমর্থন করে টুইটারে মন্তব্য করেছেন। সূর্য মিশ্র বলেছেন, স্বাধীনতার পরে দেশে এমন দুর্দিন কখনো আসেনি। না ভারতে, না পশ্চিমবঙ্গে। বাংলার গ্রাম ও শহরে, কৃষি ও শিল্পে, হাটে ও বাজারে, সড়কে ও রেলপথে, সর্বাত্মক ধর্মঘট ও হরতাল সফল করতে দলমত নির্বিশেষে সবাইকে সর্বশক্তি নিয়োগে করতে আবেদন জানাই। অধীর চৌধুরি বলেছেন, কৃষকদের ডাকা ৮ ডিসেম্বরের ভারত বন্‌ধের প্রতি সমর্থন জানিয়ে আমরা পশ্চিমবঙ্গে আন্দোলনে শামিল হব। সারা রাজ্যে আমরা এই বন্‌ধ সমর্থন করব।