সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষায় জাবিরও ‘না’

দেশের সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়ে ইউজিসির সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার ধারণাটি ‘জটিল’ ও ‘অস্পষ্ট’ হওয়ায় এতে অংশ না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি)।

মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা পরিষদের (একাডেমিক কাউন্সিল) জরুরি সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য (প্রশাসন) আমির হোসেন।

এর আগে গত বুধবার বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট), পরদিন বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এবং গতকাল রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ও ইউজিসির কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় না যাওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানায়।

আমির হোসেন বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষার বিষয়টি জটিল ও অস্পষ্ট। বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিল এই মুহূর্তে এমন অস্পষ্ট এবং জটিল পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা না নেওয়ার জন্য সর্বসম্মতক্রমে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ ছাড়া কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব স্বকীয়তাবিরোধী, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের স্বাধীনতাবিরোধী এবং ভবিষ্যতের জন্য অকল্যাণকর বলে মনে করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিল।’

দেশের বেশিরভাগ বিশ্ববিদ্যালয়ে আগামী বছর থেকে কেন্দ্রীয়ভাবে ভর্তি পরীক্ষা হতে যাচ্ছে। গত ২৩ জানুয়ারি দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) এক মতবিনিময় সভায় সমন্বিত পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

এরপর ১১ ফেব্রুয়ারি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সংগঠন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের স্ট্যান্ডিং কমিটির সভায় এ বছর থেকেই সমন্বিত পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

কিন্তু শুরু থেকেই এ নিয়ে অনাগ্রহ দেখিয়ে আসছিল বুয়েট এবং ৭৩-এর আদেশে চলা স্বায়ত্তশাসিত চার বিশ্ববিদ্যালয়। সবশেষে স্বায়ত্তশাসিত চার বিশ্ববিদ্যালয়ই কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ না করার সিদ্ধান্তের কথা জানাল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.