লিবিয়ার সামরিক একাডেমিতে বিমান হামলা, নিহত ২৮

লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলির একটি সামরিক একাডেমিতে বিমান হামলায় অন্তত ২৮ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও ১৮ জন।

শনিবার রাতের এ হামলায় আরও ১৮ জন আহত হয়েছেন বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে জাতিসংঘ সমর্থিত সরকারি বাহিনী।

নিজেদের ফেসবুক পেজে হতাহতদের পাশাপাশি ওই সামরিক একাডেমির দিকে ছুটে যাওয়া অ্যাম্বুলেন্সের ছবিও প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ সমর্থিত সরকারি বাহিনী।

ঘটনাস্থল থেকে সম্প্রচারিত ফুটেজে এলোমেলোভাবে মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

২০১১ সালে লিবিয়ার দীর্ঘদিনের শাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফি ক্ষমতাচ্যুত ও নিহত হওয়ার পর থেকে দেশটি সহিংসতা কবলিত হয়ে কয়েক অংশে বিভক্ত হয়ে আছে।

লিবিয়ার আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত জাতীয় ঐক্য সরকারের (জিএনএ) নিয়ন্ত্রণে আছে ত্রিপোলি। অপরদিকে দেশটির পূর্বাঞ্চল সামরিক কমান্ডার জেনারেল খলিফা হাফতারের অনুগত লিবিয়ান ন্যাশনাল আর্মির (এলএনএ) নিয়ন্ত্রণে আছে।

সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে ত্রিপোলির আশেপাশে গোলাবর্ষণ ও বিমান হামলা বেড়ে গেছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে।

শনিবার রাতে আল হাদবা এলাকায় সামরিক শিবিরে ‘বিমান থেকে বোমা বর্ষণ করা হয়েছে’ বলে জিএনএ-র অনুগত বাহিনীগুলো জানিয়েছে। হামলার জন্য এলএনএকে দায়ী করেছে তারা। কিন্তু হামলার সঙ্গে এলএনএ-র জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছেন গোষ্ঠীটির এক মুখপাত্র। 

আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত সরকারকে ত্রিপোলি ছাড়া করতে গত বছরের এপ্রিল থেকে রাজধানীতে হামলা শুরু করে বিদ্রোহী জেনারেল হাফতারের এলএনএ বাহিনী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.