রংপুরে স্কুলশিক্ষার্থী দলবেঁধে ধর্ষণ: বিক্ষোভ ও স্মারকলিপি প্রদান

রংপুরে ডিবি পুলিশের এএসআই রাহেনুল ইসলামের নেতৃত্বে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে দলবেঁধে ধর্ষণের প্রতিবাদে গতকাল (২৭ অক্টোবর) মঙ্গলবার ‘ধর্ষণ ও বিচারহীনতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ, রংপুর’ ব্যানারে বিক্ষোভ ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এদিকে আজ (২৮ অক্টোবর) বুধবার ঘটনার প্রতিবাদে মামলার আসামি পুলিশের কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়ে স্মারকলিপি প্রদান করেছে রংপুরের কয়েকটি নাগরিক সংগঠন।

বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর দপ্তর) আব্দুল্লাহ আল ফারুকের কাছে এ দাবি জানিয়ে স্মারকলিপি দেন তারা।

উল্লেখ্য, রংপুরের এ ধর্ষণকাণ্ডের মামলায় চার জনকে এরই মধ্যে আটক করা হয়েছে। যাদের দুইজনকে ধর্ষণকারী হিসেবে শনাক্ত করেছে সেই শিক্ষার্থী। অপর দুই নারীকে এ ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে আটক করা হয়েছে।

তবে এ মামলার অন্যতম আসামি ডিবি পুলিশের এএসআই রাহেনুল ইসলামকে হেফাজতে রাখলেও গ্রেফতার দেখায়নি পুলিশ।

তার প্রতিবাদে স্মারকলিপি প্রদান শেষে রংপুর মহানগর সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) এর সভাপতি অধ্যক্ষ খন্দকার ফখরুল আনাম বেঞ্জু সাংবাদিকদের বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যের হাতে যদি ধর্ষণের ঘটনা ঘটে তাহলে নারীদের নিরাপত্তা কোথায়? এটি একটি ন্যাক্কারজনক ঘটনা।

”তার নামে মামলা দায়ের হওয়ার পরও এখন তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়নি। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এএসআই রাহেনুল ইসলামকে গ্রেপ্তারের দাবি জানাচ্ছি। অন্যথায় আরও কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।”

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি হাসনা বানু, পেশাজীবী ফোরামের সভাপতি অ্যাডভোকেট শিরিন আক্তার স্বর্ণ, নারী এসোসিয়েশন রংপুরের সভাপতি মঞ্জুশ্রী সাহা, সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) রংপুর জেলা সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আকবর হোসেন প্রমুখ।