যমুনায় নৌকাডুবি: আরেক মৃতদেহ উদ্ধার, নিখোঁজ ১৩

সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলায় যমুনা নদীতে নৌকাডুবিতে নিখোঁজ আরেকজনের লাশ উদ্ধার হয়েছে; এ নিয়ে শিশুসহ মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩ জনে।

মঙ্গলবার (২৬ মে) দুপুরে উপজেলার স্থলচর এলাকায় এই নৌকাডুবি হয় বলে এনায়েতপুর থানার ওসি মোল্লা মাসুদ পারভেজ জানান।

ওসি জানান, দুর্ঘটনার পর ৫৭ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও নিখোঁজ রয়েছেন ১৩ জন। হতাহতদের অধিকাংশই ধানকাটা শ্রমিক।

নিহতরা হলেন- সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার গয়নাকান্দি জহির ফকিরের ছেলে পাষাণ ফকির (৬৫), কলাগাছি গ্রামের শামীম হোসেনের ছেলে নাইম (৪) এবং শাহজাদপুরে উপজেলার সুবর্ণতলী গ্রামের মৃত মজিদ মোল্লার ছেলে শেখ কামাল মোল্লা (৪৫)।

ওসি মাসুদ পারভেজ জানান, এনায়েতপুর ঘাট থেকে ইব্রাহিম মাঝির ইঞ্জিন চালিত একটি নৌকা চৌহালী যাওয়ার পথে স্থলচর এলাকায় পৌঁছলে বাতাসের কবলে পড়ে। ৭৩ জন যাত্রী নিয়ে নৌকাটি যমুনায় ডুবে যায়। পরে স্থানীয়রা ৫৭ জনকে জীবিত ও ৩ জনের লাশ উদ্ধার করে। ২ জনের লাশ স্থলচর এবং আরেকজনের লাশ কুকুরিয়া এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়।

ওসি জানান, পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা উদ্ধার অভিযানে অংশ নেন। রাতে উদ্ধার কার্যক্রম স্থগিত রাখা হয়েছে। ঢাকা থেকে ডুবুরি দল আগামীকাল সকালে এসে পৌঁছবে। তারপর নিখোঁদের উদ্ধারে তৎপরতা শুরু হবে।