মিহির ঘোষসহ নেতাকর্মীদের মুক্তি দাবিতে গাইবান্ধায় প্রতিবাদ

সিপিবি’র প্রেসিডিয়াম সদস্য মিহির ঘোষসহ আটক নেতাকর্মীদের মুক্তি ও বাসদ (মার্কসবাদী) নেতা গোলাম সাদেক লেবু, সিপিবি নেতা ছাদেকুল ইসলামসহ সকল নেতাকর্মী ও নিরীহ মানুষের নামে রাষ্ট্রদ্রোহ ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি করেছে গাইবান্ধা সামাজিক সংগ্রাম পরিষদের নেতারা।

রবিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় গাইবান্ধা সদর উপজেলার দারিয়াপুরে অনুষ্ঠিত এক প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে এ দাবি করা হয়।

গাইবান্ধা সামাজিক সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় পলিটব্যুরো সদস্য আমিনুল ইসলাম গোলাপের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন গণফোরাম জেলা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়নুল ইসলাম রাজা, বাংলাদেশের সাম্যবাদী আন্দোলনের জেলা সদস্য সচিব মনজুর আলম মিঠু, ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সভাপতি প্রণব চৌধুরী খোকন, বাসদ জেলা আহ্বায়ক গোলাম রব্বানী, কমিউনিস্ট পার্টির জেলা সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মুকুল, বাসদ (মার্কসবাদী) জেলা নেতা গোলাম সাদেক লেবু, বাসদ জেলা সদস্য সচিব সুকুমার মোদক, ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী) জেলা সংগঠক মৃণাল কান্তি বর্মণ, বাসদ (মার্কসবাদী) জেলা নেতা নারী নেত্রী নিলুফার ইয়াছমিন শিল্পী, সিপিবি দারিয়াপুর অঞ্চল সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, সাম্যবাদী আন্দোলনের জাহিদুল হক প্রমুখ। সঞ্চালনা করেন সামাজিক সংগ্রাম পরিষদের সদস্য সচিব ও কৃষক শ্রমিক জনতালীগের জেলা সভাপতি মোস্তফা মনিরুজ্জামান।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, গিদারী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ঘটনায় রাষ্ট্রদ্রোহ ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দেয়া উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও হয়রানিমূলক। অন্যায়, জুলুম ও লুটপাটের বিরুদ্ধে কন্ঠরোধ করতেই এ মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। যা কোনভাবে মেনে নেয়া যায় না।

বক্তারা অবিলম্বে সিপিবি নেতা মিহির ঘোষ, ছাদেকুল ইসলামসহ আটক নেতাকর্মীদের মুক্তি দাবি করেন এবং সকলের নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের আহবান জানান। বক্তারা হুসিয়ারি দিয়ে বলেন, এই দাবি অবিলম্বে মেনে নেয়া না হলে প্রয়োজনে আরোও বৃহত্তর কর্মসূচি দেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.