ভোলায় গৃহবধূকে দলবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার

ভোলার গৃহবধূকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় মনপুরা উপজেলার দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলামকে (৩০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার (২৮ অক্টোবর) ভোরের দিকে উপজেলার দক্ষিণ সাকুচিয়া এলাকার একটি বাড়ি থেকে এই ছাত্রলীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে মনপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাখাওয়াত হোসেন বলেন, মামলা করার পর থেকে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার ভোরের দিকে দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নে অভিযান চালিয়ে ধর্ষণ মামলার আসামি ওই ছাত্রলীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গত শনিবার দুপুরে এক গৃহবধূ তার আড়াই বছরের শিশুকে নিয়ে মনপুরা যাওয়ার উদ্দেশে চরফ্যাশন উপজেলার বেতুয়া লঞ্চঘাটে আসেন। লঞ্চ না পেয়ে স্পিডবোটে চড়েন। বোটে চারজন যাত্রী ছিলেন। পথিমধ্যে বোটটি থামিয়ে চর পিয়ালে নিয়ে চার যাত্রী তাকে দলবদ্ধভাবে ধর্ষণ করেন। এ সময় শিশুটি স্পিডবোটে কাঁদছিল। স্পিডবোট চালক মো. রিয়াজ এ ঘটনা স্পিডবোটের মালিক সাকুচিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি নজরুলকে জানালে তিনি অপর একটি স্পিডবোটে চড়ে চর পিয়ালে এসে গৃহবধূকে ধর্ষণ করেন।

এ ঘটনায় শনিবার রাতে গৃহবধূ বাদী হয়ে মনপুরা থানায় নজরুল ইসলাম (৩০), বেলাল পাটোয়ারী (৩৫), মো. রাসেদ পালোয়ান (২৫), শাহীন খান (২২), মো. রিয়াজ ও মো. কিরণকে (২৬) আসামি করে ধর্ষণ মামলা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.