ভারত ও ব্রিটেনের ‘মিশ্রিত’ নতুন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত ভিয়েতনামে

ভিয়েতনামে করোনাভাইরাসের করোনাভাইরাসের নতুন একটি ধরন শনাক্ত হয়েছে। সে দেশের কর্তৃপক্ষ বলছে এটি ভারতীয় ও যুক্তরাজ্যের ভ্যারিয়েন্টের একটি সংমিশ্রণ এবং এটি বাতাসে দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে।

ভিয়েতনামের স্বাস্থ্যমন্ত্রী নগুয়েন থান লং গতকাল (২৯ মে) শনিবার করোনার এই মিউটেশনকে ‘খুবই বিপজ্জনক’হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

ভিয়েতনামে নতুন শনাক্ত হওয়া রোগীদের মধ্যে পরীক্ষা চালিয়ে করোনার এ ধরন পাওয়া গেছে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, নতুন শনাক্ত ধরনের জেনেটিক কোড শিগগির প্রকাশ করা হবে।

ভারতে শনাক্ত করোনার নতুন ধরনটি ‘বি.১.৬১৭.২’নামে পরিচিত। গত অক্টোবর মাসে এ ধরন শনাক্ত হয়। আর যুক্তরাজ্যে শনাক্ত করোনার নতুন ধরনটি ‘বি.১.১.৭’নামে পরিচিত। যুক্তরাজ্যের চেয়ে করোনার ভারতীয় ধরনটি বেশি সংক্রামক বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

সম্প্রতি বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, করোনার ভারতীয় ধরনের বিরুদ্ধে ফাইজার ও অ্যাস্টাজেনেকার দুই ডোজ ভ্যাকসিন কার্যকর।

প্রসঙ্গত, ভিয়েতনামে এখন পর্যন্ত করোনায় ৬ হাজার ৭০০ জনের বেশি করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ সংখ্যার মধ্যে অর্ধেকের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে চলতি বছরের এপ্রিলের শেষ ভাগ থেকে শুরু করে বর্তমান সময় পর্যন্ত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় ৪৭ জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। করোনা নিয়ন্ত্রণে ভিয়েতনামে টিকাদান কার্যক্রম চলছে।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসে কোভিড শনাক্ত হয়েছিল, তারপর এর হাজারো রূপান্তর ঘটেছে গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.