ব্যবসায়ী হত্যার বিচার দাবিতে গাইবান্ধায় অর্ধদিবস হরতাল পালিত

গাইবান্ধা শহরে সকাল ৬টা থেকে ২টা পর্যন্ত অর্ধদিবস হরতাল পালিত হয়েছে।

গাইবান্ধার ব্যবসায়ী হাসান আলী হত্যার সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তার, সদর থানার ওসি’র অপসারণসহ ৪ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে এ হরতাল কর্মসূচি পালিত হয়।

হাসান হত্যার প্রতিবাদ মঞ্চ, গাইবান্ধার আহ্বানে এ কর্মসূচি পালিত হয়েছে বলে জানা যায়।

হরতালকারীদের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় যে, হরতাল চলাকালে শহরের প্রায় সকল দোকানপাট বন্ধ ছিল। জরুরি প্রয়োজন ব্যতিত যানবাহন চলেছে অনেক কম।

হরতাল সফল করতে সকাল থেকেই হাসান হত্যার প্রতিবাদ মঞ্চের নেতাকর্মীদের মূহুর্মুহ মিছিল শহর প্রদক্ষিণ করে। সকাল ১০টায় মিছিল শেষে ১নং ট্রাফিক মোড়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন হাসান হত্যা প্রতিবাদ মঞ্চের সমন্বয়ক ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ আমিনুল ইসলাম গোলাপ, সিপিবি’র জেলা সভাপতি মিহির ঘোষ, জাসদের জেলা সভাপতি গোলাম মারুফ মনা, জেলা বারের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সিরাজুল ইসলাম বাবু প্রমুখ।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাসদের জিয়াউল হক জনি, সাম্যবাদী আন্দোলনের মনজুর আলম মিঠু, বাসদের গোলাম রব্বানী, সিপিবি’র মোস্তাফিজুর রহমান মুকুল, ক্রীড়া পরিবারের ওয়াজিউর রহমান রাফেল, ওয়ার্কার্স পার্টির প্রণব চৌধুরি খোকন, মিলন কান্তি সরকার, বাসদ (মার্কসবাদী)’র কাজী আবু রাহেন শফিউল্যাহ, নিলুফার ইয়াছমিন শিল্পী, কৃষক শ্রমিক জনতালীগের মোস্তফা মনিরুজ্জামান, ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী)’র মৃণাল কান্তি বর্মণ এবং ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।

উল্লেখ্য গত ১০ এপ্রিল গাইবান্ধার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হাসান আলী আওয়ামীলীগের তৎকালীন উপ-দপ্তর সম্পাদক দাদন ব্যবসায়ী দুর্বৃত্ত মাসুদ রানার বাড়ীতে ২৬ দিন অপহরিত থেকে নিহত হন। তার স্ত্রী স্বামীকে উদ্ধারের জন্য সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করলেও পুলিশ তাকে উদ্ধার না করে উল্টো মাসুদ রানার কাছেই তাকে তুলে দেয়।

এই হত্যাকান্ডের বিচার দাবীতে গাইবান্ধার বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, ব্যবসায়ী সংগঠন, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন আন্দোলনে নামে এবং গঠিত হয় হাসান হত্যার প্রতিবাদ মঞ্চ।

গত ৩১ মে গাইবান্ধা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে অবস্থান ও আইজিপি বরাবর স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচি থেকে মঞ্চের নেতৃবৃন্দ আগামী ৭(সাত) দিনের আলটিমেটাম দেন। এর মধ্যে সদর থানার ওসি’র অপসারণসহ ৪ দফা দাবি মেনে নেয়া না হলে ১০ জুন হরতাল পালনের ঘোষণা দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.