বেতন-বোনাস পরিশোধের দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

২০ রোজার মধ্যে এক মাসের বেতনের সমান ঈদ বোনাস ও সকল বকেয়া পাওনা পরিশোধ করাসহ এপ্রিল মাসের পূর্ণ বেতন প্রদানের দাবিতে ফতুল্লার কুতুব আইল এলাকার প্যারাডাইজ কেবলস শ্রমিক ইউনিয়নের উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

১৩ এপ্রিল (বুধবার) সকাল ৮টায় কারখানার গেইটের সামনে শ্রমিকরা অবস্থান নিয়ে এ বিক্ষোভ সমাবেশ করেন।

সমাবেশ শেষে কারখানার গেইট থেকে শিবু মার্কেট পর্যন্ত বিক্ষোভ মিছিল করেন আড়াই শতাধিক শ্রমিক।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন প্যারাডাইজ কেবলস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মোঃ রাসেল। বক্তব্য রাখেন ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মোঃ নাজমুল হোসেন, সহ-সভাপতি মোঃ সেলিম, সহ-সাধারণ সম্পাদক মোঃ বাদল মোল্লা সহ ইউনিয়নের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, ঈদ-উল ফিতর উপলক্ষে ২০ রোজার মধ্যে প্যারাডাইজ কেবলসহ সকল শ্রমিকদের এক মাসের বেতনের সমান ঈদ বোনাস ও বকেয়া পাওনা পরিশোধ করতে হবে। এপ্রিল মাসের পুরো বেতন ঈদের আগে দিতে হবে। সময় মতো শ্রমিকরা বেতন-বোনাস না পেলে ঈদে বাড়ি ফেরার জন্য গাড়ির অগ্রিম টিকিট বুকিং করা ও হাটবাজার করা সম্ভব হয় না। এসব বিবেচনায় নিয়ে ঈদের আগে শ্রমিকদের সকল পাওনা প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে হবে। বেতন-বোনাস নিয়ে কোন টালবাহানা সহ্য করা হবে না।

তারা আরও বলেন, বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বেড়েছে, বাসা ভাড়া, পরিবহন ভাড়াসহ সব কিছুর দাম বৃদ্ধি পেয়েছে ফলে শ্রমিকরা পড়েছে বিপাকে। যে টাকা বেতন পাই সেই টাকা দিয়ে আমাদের শ্রমিকের সংসার কোনভাবেই চলে না। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বমূখী বাজার ও জনজীবনের ব্যয় বৃদ্ধির বিষয় বিবেচনায় নিয়ে সরকারকে অবিলম্বে নিম্নতম মজুরি ২০ হাজার টাকা ঘোষণা করতে হবে।

নেতৃবৃন্দ ২০ রোজার মধ্যে প্যারাডাইজ কেবলসহ অপরাপর সকল কারখানার শ্রমিকদের এক মাসের বেতনের সমান ঈদ বোনাস ও সকল বকেয়া পাওনা পরিশোধসহ এপ্রিল মাসের পুরো বেতন প্রদানের জন্য কারখানার মালিক ও সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.