বুয়েটে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ; ছাত্র রাজনীতিকে কলঙ্কিত করার দায় ছাত্রলীগের

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনার পর থেকে চলমান আন্দোলনের ফলে গতকাল বুয়েট ক্যাম্পাস থেকে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। এই ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন।

এক যৌথ বিবৃতিতে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল ও সাধারণ সম্পাদক অনিক রায় বলেন, বুয়েটে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ হওয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশের ছাত্র রাজনীতির ইতিহাসে এক কলঙ্কজনক অধ্যায় রচিত হলো। এই কলঙ্কজনক অধ্যায়ের সম্পূর্ণ দায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ নামক সংগঠনটির। এই সংগঠনটি সন্ত্রাস ও দখলদারিত্বের চর্চায় এমন পর্যায় পৌঁছেছে বাংলাদেশের মানুষের আজ ছাত্র রাজনীতিকে প্রশ্নবিদ্ধ করছে।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, আমাদের মনে রাখতে হবে ছাত্র রাজনীতি এই দেশে স্বার্থের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত এবং কেবলমাত্র সুস্থ ও গণতান্ত্রিক ধারার রাজনীতিক চর্চার মাধ্যমে এই সন্ত্রাসকে রুখে দেওয়া সম্ভব। রাজনীতি নিষিদ্ধ করে না বরং ছাত্র রাজনীতির ইতিহাসকে কলঙ্কমুক্ত করার মাধ্যমে এই সন্ত্রাস ও দখলদারিত্বের হাত থেকে রাজনৈতিক ও জাতীয় মুক্তি সম্ভব। তাই সময় এসেছে সুস্থ ধারার রাজনীতিতে অংশগ্রহণের।

নেতৃবৃন্দ আশাবাদ ব্যক্ত করেন সারা বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা এই সন্ত্রাস ও দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে দাঁড়াবে এবং বাংলাদেশের ছাত্র রাজনীতির ইতিহাসে পুনরায় আরেকটি গৌরবোজ্জ্বল অধ্যায় রচনা করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.