বিপ্লবকে রক্ষা করতে রাস্তায় নেমেছে কিউবার জণগণ

বিপ্লবের ৭০ বছর পর আবার মার্কিন ষড়যন্ত্রের মুখোমুখি ফিদেলের দেশ। কোভিড পরিস্থিতিতেও মার্কিন নিষেধাজ্ঞা দূর্বল করেছে কিউবার অর্থনীতি। তারই সুযোগ নিয়ে চেষ্টা শুরু হয়েছে প্রতিবিপ্লবের।

বিপ্লবকে রক্ষা করতে রাস্তায় নেমেছে কিউবার জণগণ।

মার্কিন-মদতপুষ্ট প্রতিবিপ্লবী প্রতিবাদীদের বিরুদ্ধে তাঁরা আওয়াজ তুলেছেন ‘ভিভা ফিদেল’!

প্রথমে আর্থিক ভাবে শেষ করো। তারপর গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার নামে দেশ দখল করো। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই এক ব্লু প্রিন্টের শিকার হয়েছে একেরপর এক বাম শাসিত দেশগুলো। এবার টার্গেট কিউবা।

কিউবা সরকারের দাবি, গত কয়েক দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো গত রোববার কিউবায় যে হাজার হাজার মানুষ সরকারবিরোধী বিক্ষোভ করেছে, তার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ধনই দায়ী। এই অভ্যূত্থাণচেষ্টা মার্কিনীদের ব্লু প্রিন্টেরই অংশ।

আজ মঙ্গলবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স এসব তথ্য জানিয়েছে।

এদিকে কিউবার রাষ্ট্রপতি দিয়াজ ক্যানেল বলেছেন, ‘ওরা (পশ্চিম) যদি কিউবার জন্য কিছু করতে চায়, ওরা যদি সত্যিই আমাদের জনগণের জন্য উদ্বিগ্ন হয়, ওরা যদি কিউবার সমস্যার সমাধান করতে চায়, তাহলে আগে ওরা অবরোধ প্রত্যাহার করুক, তারপর আমরা দেখব।’

সেইসঙ্গেই দিয়াজ ক্যানেলের আহ্বান, ‘আমাদের দেশের সমস্ত বিপ্লবী, সমস্ত কমিউনিস্টদের আমরা রাস্তায় নামতে বলছি। বিশেষ করে যেখানে যেখানে আজ প্ররোচনা ছড়ানো হয়েছে, সেখানে সবাইকে রাস্তায় থাকতে বলেছি।’

এদিকে ওয়াশিংটনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন কিউবার মানুষদের ‘শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ’কে ‘সাহসী’ পদক্ষেপ বলে মন্তব্য করেছেন। বিক্ষোভকারীদের পাশে যুক্তরাষ্ট্র রয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.