বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির পাঁয়তারা বন্ধের দাবি বাম জোটের

বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির তৎপরতায় উদ্বেগ প্রকাশ করে এই মূল্যবৃদ্ধির পাঁয়তারা বন্ধের দাবি জানিয়েছে বাম গণতান্ত্রিক জোট।

‘বিগত দিনে গণশুনানীতে প্রমাণ করা হয়েছিল যে, ভুলনীতি ও দুর্নীতির কারণে বিদ্যুতের উৎপাদন খরচ বৃদ্ধির করা বলা হচ্ছে। কিন্তু এ দায় জনগণ নেবে না’ বলেও জানান বাম জোটের নেতৃবৃন্দ।

৩ অক্টোবর ২০২২, সোমবার সকাল ১০টায় বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র কার্যালয়ে বাম গণতান্ত্রিক জোটের কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক, সিপিবি’র সাধারণ সাধারণ সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্সের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভা থেকে এসব কথা বলা হয়।

সভায় উপস্থিত ছিলেন সিপিবি’র সভাপতি মোহাম্মদ শাহ আলম, বাসদের সাধারণ সম্পাদক বজলুর রশীদ ফিরোজ, বিপ্লবী কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল কবির জাহিদ, বাসদ (মার্কসবাদী)’র সমন্বয়ক মাসুদ রানা, সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের সভাপতি হামিদুল হক, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম সবুজ, কমিউনিস্ট লীগের অধ্যাপক আব্দুস সাত্তার, সিপিবি নেতা সাজ্জাদ জহির চন্দন, বাসদ নেতা রাজেকুজ্জামান রতন, নিখিল দাস, বাসদ (মার্কসবাদী)’র মানস নন্দী, কমিউনিস্ট লীগের নজরুল ইসলাম, শামীম ইমাম, সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের রুবেল শিকদার প্রমুখ।

সভা থেকে নেতৃবৃন্দ বলেন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানী খাতে ভুলনীতি-দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনার কারণে হাজার হাজার কোটি টাকা গচ্ছা দিতে হচ্ছে। এই দায় জনগণের কাঁধে চাপাতে আবারও মূল্যবৃদ্ধির পাঁয়তারা চলছে। বিদ্যুতের দাম বাড়লে নিত্যপণ্যসহ বিভিন্ন খাতে আরেকবার মূল্যবৃদ্ধি ঘটবে। আয় কমে যাওয়া সাধারণ মানুষের পক্ষে তা বহন করা সম্ভব না।

নেতৃবৃন্দ এই মূল্যবৃদ্ধির পাঁয়তারার বিরুদ্ধে জনগণকে রুখে দাঁড়ানোরও আহ্বান জানিয়েছেন।

নেতৃবৃন্দ সারাদেশের সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় দুর্গাপূজা যাতে স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে নির্বিঘ্নে পালন করতে পারে সে ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

নেতৃবৃন্দ দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সচেতন দেশবাসীকে সর্তক থাকারও আহ্বান জানিয়েছেন।

সভায় নেতৃবৃন্দ রাজপথে সক্রিয় থেকে ভাত ও ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠায় গণসংগ্রাম গড়ে তুলতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.