বাসের ভাড়া ৮০% বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি

বাসের ভাড়া ৮০% বৃদ্ধির সিদ্ধান্তকে অন্যায় ও অযৌক্তিক আখ্যায়িত করে তীব্র ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ।

শনিবার (৩০ মে) সংবাদপত্রে দেয়া এক বিবৃতিতে ভাড়া বৃদ্ধির এই সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানিয়েছেন বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, করোনা সংকটে জনগণ এমনিতেই বিপর্যস্ত। সরকার বিশেষজ্ঞ মতামত না নিয়েই সবকিছু খুলে দিয়ে নিজের দায়িত্ব এড়াতে চাইছে এবং জনগণকে মৃত্যুমুখে ঠেলে দিয়েছে। উপরন্তু মরার উপর খাড়ার ঘা হিসেবে গণপরিবহনের ভাড়া ৮০% বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যা সম্পূর্ণ অন্যায়, অযৌক্তিক ও জনগণের সাথে এক নির্মম তামাসা ছাড়া কিছুই না।

তিনি বলেন, ঢাকা মহানগরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে কিভাবে গণপরিবহন চালাবে তা কোন ভাবেই দেশবাসীর কাছে বোধগম্য নয়। যেখানে বিআরটিএ ফিটনেসবিহীন গাড়ী চলাচলের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিতে পারে না, সেখানে স্বাস্থ্য বিধি মেনে গাড়ী চালাতে বাধ্য করবে এটা কোন মতেই বিশ্বাসযোগ্য না।

তিনি আরও বলেন, যদি সত্যিই স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোন পরিবহন চলে তাহলে যদি বাস মালিকের ক্ষতি হয় তা সরকার ভর্তুকী দিয়ে পূরণ করুক, সরকারের কোন দায়িত্ব না নিয়ে সব জনগণের কাঁধে চাপিয়ে দেবে কেনো।

খালেকুজ্জামান মুষ্টিমেয় ব্যবসায়ীদের মুনাফার স্বার্থে সবকিছু খুলে দেয়া ও গণপরিবহন চালুর সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করে জনগণের বিপদ হবে এমন সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানান।