‘ফাইজারের টিকা’র দাবিতে প্রবাসীদের বিক্ষোভ

ফাইজারের টিকার দাবিতে প্রবাসী শ্রমিকেরা বিক্ষোভ শুরু করেছেন।

শ্রমিকদের দাবি, ফাইজারের টিকা নেওয়ার জন্য তাঁরা বিভিন্ন জায়গা থেকে সকালেই হাসপাতালে হাজির হয়েছেন। সকালে ফাইজারের টিকা দেওয়া হয়েছিল।

কিন্তু বেলা বাড়তেই হাসপাতার কর্তৃপক্ষ জানায়, ফাইজারের টিকা শেষ হয়ে গেছে। সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী হাসপাতালে মডার্নার টিকা আছে প্রবাসীদের জন্য।

অথচ শ্রমিকরা বলছেন, তাদের অনেকেরই ফাইজারের টিকাই দিতে হবে।

এরই প্রেক্ষিতে দুপুর ১২টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত ফাইজারের টিকার দাবিতে কয়েক’শ প্রবাসী রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের দোতলায় করোনার টিকাকেন্দ্রের সামনে বিক্ষোভ করেন।

শ্রমিকদের অনেকে অভিযোগ করেছেন, হাসপাতালে কর্তব্যরত আনসার সদস্যরা টাকার বিনিময়ে ফাইজারের টিকা দেওয়ার ব্যবস্থার কথা বলছেন। এছাড়াও নানাভাবে শ্রমিকদের হয়রানি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়।

শ্রমিকদের বিক্ষোভের মুখে এ সময় কেন্দ্রে ঢোকার কলাপসিবল গেট বন্ধ করে দেওয়া হয়। হাসপাতালে মোতায়েন করা হয় অতিরিক্ত পুলিশ ও আনসার সদস্য।

পরে এক ঘণ্টা পর আবার টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয় বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, ৫ জুলাই অনলাইনে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এবং তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের যৌথ সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বিদেশগামী কর্মীদের মধ্যে যাঁরা সৌদি আরব ও কুয়েত যাবেন, তাঁরা যুক্তরাষ্ট্রের ফাইজার-বায়োএনটেকের করোনাভাইরাসের টিকা পাবেন। আর যাঁরা অন্য দেশে যাবেন, তাঁরা চীনের সিনোফার্মের টিকা পাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.