প্রগতি লেখক সংঘের জাতীয় সম্মেলন ২৯ জুলাই

প্রগতি লেখক সংঘের জাতীয় সম্মেলন আগামী ২৯ জুলাই। সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির গত ২০ মে’র বর্ধিত সভায় এ তারিখ চূড়ান্ত হয়।

সভায় জাতীয় আন্তর্জাতিক পরিস্থিতি, সংগঠন সম্পর্কিত বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

সভায় অংশ নেওয়া বক্তারা বলেন, দেশে কর্তৃত্ববাদী শাসনকে টিকিয়ে রাখতে শাসকশ্রেণি দমন পীড়নের পথ বেছে নিয়েছে। মত প্রকাশের স্বাধীনতা, বিবেকের স্বাধীনতা ভুলুন্ঠিত হচ্ছে। অন্যদিকে তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি মানুষের জীবনকে অতিষ্ঠ করে তুলছে। করোনার কারণে একদিকে যেমন মানুষ কাজ হারিয়েছে, অপরদিকে অসহনীয় মূল্যস্ফীতি মানুষকে বিপর্যস্ত করেছে। গণতান্ত্রিক অধিকার হারিয়ে মানুষের মধ্যে অস্থিরতা ও ক্ষোভ তৈরি হচ্ছে। এর সুযোগে লুটেরা ধনিক শ্রেণি তাদের লুটপাট অব্যাহত রেখেছে।

বক্তারা আরো বলেন, ক্রমবর্ধমান সামাজিক অস্থিরতা, গণতন্ত্রহীন পরিবেশ সাম্প্রদায়িকতার উর্বর ভূমি তৈরি করছে। বড় বড় রাজনৈতিক দলগুলো নিজস্ব হিসাব নিকাশে সাম্প্রদায়িক শক্তিকে মদদ দিচ্ছে। একদিকে রাষ্ট্রীয় কর্তৃত্ববাদ, অপরদিক সামাজিকভাবে শক্তিশালী হয়ে ওঠা পশ্চাদপদ সাম্প্রদায়িক চিন্তার বিস্তৃতি স্বাধীনভাবে মত প্রকাশ, বিজ্ঞানভিত্তিক চিন্তাচেতনার বিকাশ ও সাহিত্যচর্চার পরিবেশকে মারাত্মকভাবে ব্যাহত করছে। লেখক শিল্পীদের উপর মনস্তাত্ত্বিক চাপ তৈরি করে স্বাধীন মত প্রকাশের অধিকারকে দমন করা হচ্ছে।

সভায় প্রগতি লেখক সংঘের নেতৃবৃন্দ বলেন, প্রগতি লেখক সংঘ সারা দেশের বিভিন্ন জেলায় নানামাত্রিকভাবে মত প্রকাশের স্বাধীনতার জন্য লড়াই করছেন ও লেখালেখি করছেন। এছাড়া সভা থেকে বাংলাদেশের আর্থ সামাজিক ব্যবস্থার প্রগতিমুখী পরিবর্তনে মানুষকে সচেতন ও সংগঠিত করতে যে প্রগতিশীল লেখক কবিরা নানা প্রতিকূলতার মধ্যেও কাজ করে যাচ্ছেন, তাদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানানো হয়।

সংগঠনের সভাপতি কবি গোলাম কিবরিয়া পিনুর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক কবি, সাংবাদিক দীপংকর গৌতমের সঞ্চালনায় শোক প্রস্তাব পাঠ করেন কবি আনোয়ার কামাল৷ সভায় কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্তের আলোকে রিপোর্ট উত্থাপন করেন সংগঠনের সহ-সাধারণ সম্পাদক অভিনু কিবরিয়া ইসলাম। সভায় কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি কথাসাহিত্যিক শামসুজ্জামান হীরা, কবি এ কে শেরাম, লেখক জাকির হোসেন, কবি সাখাওয়াত টিপু, কবি ইয়াজদানী কোরায়শি সহ-সাধারণ সম্পাদক মাধব রায়, কোষাধ্যক্ষ মীর মোশাররফ হোসেন, দপ্তর সম্পাদক মাহবুবুল হক, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাবীব ইমন, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এম এ আজিজ মিয়া, সিদ্দিক আহমেদ, জাহিদ বিন মতিন, সুদীপ্ত হান্নান, জলিল আহমেদ, দিলরুবা সুলতানা, শহীদুল হক সুমন, সোহেল তারেক। এছাড়াও বিভিন্ন জেলা কমিটির পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন কবি নজরুল হায়াত, সাব্বির রেজা, বিমল কান্তি দাস, শাহ মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন, বিপ্লব নন্দী, রাজলক্ষী, মুজিব উর রহমান, সান্দ্র মোহন্ত।

সভায় প্রগতি লেখক সংঘের চতুর্থ জাতীয় সম্মেলন সফল করতে কথাসাহিত্যিক শামসুজ্জামান হীরাকে আহ্বায়ক ও কবি আনোয়ার কামালকে সদস্য সচিব করে প্রস্তুতি পরিষদ গঠন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.