পূজামণ্ডপে হামলা, ২২ জেলায় বিজিবি মোতায়েন

কুমিল্লার একটি পূজামণ্ডপে ‘কোরআন পাওয়া’ এবং সেটিকে কেন্দ্র করে সহিংসতার জের ধরে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে বেশ কয়েকটি মন্দিরে হামলা ও পুলিশের সাথে হামলাকারীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

বুধবার রাতের সেই সংঘর্ষে তিন জন নিহত হয়েছে এবং দুই জন গুরুতর আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এদিকে কোরআন অবমাননার কথিত অভিযোগ তুলে কুমিল্লা, চাঁদপুরহ দেশের কয়েকটি এলাকায় হামলা-ভাংচুর-সংঘাতের পর দুর্গা পূজায় নিরাপত্তা দিতে ২২ জেলায় সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিজিবির সদস্যদের মাঠে নামানো হয়েছে।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) পরিচালক (অপারেশনস) লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফয়জুর রহমান বৃহস্পতিবার এ কথা জানান।

হাজীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সূত্রে জানা যায়, বুধবার সন্ধ্যার পর মন্দির আক্রমণ করার এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর বুধবার রাত থেকে হাজীগঞ্জে ১৪৪ ধারা জারি করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

এছাড়া বুধবার রাতেই নোয়াখালীর হাতিয়া এবং চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে মিছিল নিয়ে মন্দিরে হামলা চালানো হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় পুলিশ।

পুলিশ মিছিলকারীদের ছত্রভঙ্গ করে তিন জনকে গ্রেপ্তার করেছে বলে জানা গেছে।

এর আগে বুধবার দিনের বেলা কুমিল্লার বেশ কয়েকটি পূজা মণ্ডপে হামলা হয়।

এদিকে কুমিল্লার ঘটনার জেরে হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনায় ৩৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার ঘটনার পর থেকে আজ বৃহস্পতিবার ভোররাত পর্যন্ত তাঁদের আটক করা হয়। জেলা পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ সংবাদ মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এছাড়া গাজীপুরে তিনটি মন্দিরে হামলা চালিয়ে প্রতিমা ভাঙচুরের পর ২০ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.