পুনর্বাসন ছাড়া হকার উচ্ছেদের প্রতিবাদে বিক্ষোভ-সমাবেশ

পুনর্বাসন ছাড়া হকার উচ্ছেদ, হামলা-মামলা-গ্রেফতার-নির্যাতনের প্রতিবাদে এবং হকার ব্যবস্থাপনার জাতীয় নীতিমালা প্রণয়নের দাবিতে বিক্ষোভ-সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ হকার্স ইউনিয়ন।

বুধবার (৬ নভেম্বর) সকাল ১১টায় রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের লিংক রোডে ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন অঞ্চল থেকে কয়েক হাজার বিক্ষুব্ধ হকার এসে সমবেত হলে বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়।

মিছিলটি বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম ১নং গেট, ২নং গেট , সার্জেন্ট আহাদ পুলিশ বক্স, গুলিস্তান ফ্লাইওভার, গোলাপশাহ মাজার, জিরোপয়েন্ট, পল্টন ময়দান, শাপলা চত্বর, নটরডেম কলেজ, আরামবাগ,পল্টন থানা, কাকরাইল ও বিজয়নগর হয়ে পল্টন মোড়ে সমাবেশের মধ্য দিয়ে শেষ হয়।

পল্টন মোড়ে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি আব্দুল হাশিম কবীর। বক্তব্য রাখেন হকার্স ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সেকেন্দার হায়াৎ, সহ-সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হযরত আলী, সহ- সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান বাবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জসিম উদ্দিন।

সমাবেশে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ফুটপাতে চাঁদাবাজির অজুহাতে প্রশাসন ফুটপাত থেকে হকার উচ্ছেদ করছে কারণ ফুটপাত নাকি পুলিশ, এমপি, কাউন্সিলর ও সরকার দলীয় অঙ্গ সংগঠনের নেতারা চাঁদাবাজি করেন তাই ফুটপাত থেকে হকার উচ্ছেদ করলে চাঁদাবাজি বন্ধ হবে।

তিনি প্রসঙ্গ টেনে বলেন, পত্র-পত্রিকায়তো পরিবহনসহ বিভিন্ন সেক্টরে চাঁদাবাজি, লুটপাটের কথা প্রকাশিত হচ্ছে তাহলে পরিবহনসহ সব মন্ত্রণালয় বন্ধ করে দিলে সমস্যার সমাধান হবে? মাথা ব্যাথা হলে মাথা কেটে ফেলা সমাধান নয়, সঠিক ওষুধ খাওয়ানো সমাধান।

তিনি আরও বলেন, সিটি কর্পোরেশন/সরকার হকারদের আইনী স্বীকৃতি দিয়ে তাঁদের কাছ থেকে ট্যাক্স/টোল নিলে সব ধরনের চাঁদাবাজি এমনিই বন্ধ হয়ে যাবে। সিটি কর্পোরেশন সেটি না করে চাঁদাবাজির সুযোগ করে দিচ্ছে।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, প্রতিদিন প্রশাসন অসহায় হকারদের উপর জুলুম-নির্যাতন-মামলা-হামলা-গ্রেফতার করছে, এটা প্রশাসন অব্যাহত রাখলে হকাররা দুর্বার আন্দোলনের মধ্য দিয়ে প্রতিহত করবে।

সংগঠনের সভাপতি সমাপনী বক্তব্যে বলেন, ঢাকা মহানগরীর সব হকার ঐক্যবদ্ধ থেকে রুটি রুজির সংগ্রাম, বেঁচে থাকার সংগ্রামকে অগ্রসর করতে হবে। তিনি আগামী ১১ নভেম্বর হকার গণমিছিলে সবাইকে অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়ে সমাবেশ সমাপ্তি করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.