পতাকা বিতর্ক: ফেসবুক থেকে ছবি সরালো পাকিস্তান

পাকিস্তানী হাইকমিশন তাদের ফেসবুক পাতার কাভার ফটো থেকে বাংলাদেশে ও পাকিস্তানের পতাকার সমন্বয়ে তৈরি একটি ইলাস্ট্রেশন সরিয়ে নিয়েছে। বাংলাদেশ সময় বেলা সাড়ে বারটার দিকে ছবিটি পরিবর্তন করে শুধু পাকিস্তানের পতাকা দেয়া হয়েছে কাভার ফটো হিসেবে।

এ নিয়ে বাংলাদেশের বিভিন্ন সংগঠন প্রতিক্রিয়া দেখাতে শুরু করলে ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় পাকিস্তান হাইকমিশনকে শনিবার ছবিটি সরিয়ে নেয়ার অনুরোধ জানায়।

আজ রবিবার দুপুরে ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন বলেন, “এটি আমাদের ভালো লাগেনি। তাই বলেছি তোমরা ছবিটি দয়া করে সরিয়ে নাও”।

এর আগে গত একুশে জুলাই তারা বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের পতাকা একটি আরেকটির সাথে জুড়ে দিয়ে একটি ছবি ফেসবুক পাতার কাভার ফটো হিসেবে প্রকাশ করে।

বিবিসি বাংলা (অনলাইন) –এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়, পাকিস্তান কেন এমন ছবি প্রকাশ করেছিলো আর এই ছবি নিয়ে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাদের কি বলেছে বিবিসি বাংলা এমন প্রশ্ন করলে হাই কমিশনের মুখপাত্র প্রশ্নটি গ্রহণ করলেও পরে আর কোন জবাব দেননি।

তবে আজ প্রেস ব্রিফিংয়ে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিজেই জানিয়েছেন যে, কেন পাকিস্তান এই ছবি প্রকাশ করেছিলো সেটি তাকে তারা জানিয়েছে এবং মন্ত্রী হাইকমিশনের পাঠানো কিছু ছবি তার মোবাইল থেকে সাংবাদিকদের দেখান।

মন্ত্রী বলেন পাকিস্তান হাইকমিশন তাকে এসব নমুনা ছবি পাঠিয়ে বলেছে যে বেশ কিছু দেশে পাকিস্তান হাইকমিশন সে দেশের পতাকার সাথে পাকিস্তানের পতাকার মিশ্রণ করে ফেসবুকে ছবি প্রকাশ করেছে।

সিঙ্গাপুর, শ্রীলঙ্কা, তুরস্ক, সৌদি আরব ও মালয়েশিয়াসহ কয়েকটি দেশে পাকিস্তান হাইকমিশন সে দেশের এবং পাকিস্তানের পতাকা মিলিয়ে ছবি প্রকাশ করেছে বলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান।

প্রসঙ্গত, পররাষ্ট্রমন্ত্রী যখন এ বক্তব্য দিচ্ছিলেন তার কয়েক মিনিট আগেই পাকিস্তান হাইকমিশন তাদের ফেসবুক পাতা থেকে বাংলাদেশ-পাকিস্তানের পতাকা যৌথ ছবিটি সরিয়ে কাভার ফটো হিসেবে শুধু পাকিস্তানের পতাকা আপলোড করে দেয়।

যদিও পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন যে পাকিস্তান কোন রকম খারাপ উদ্দেশ্য থেকে এটি করেনি তারপরেও ছবিটি সরানো অনুরোধ জানানোর কারণ হলো রাজনৈতিক বিতর্ক এড়ানো।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিকে কেন্দ্র করে অনেক দেশই শুভেচ্ছার নিদর্শন স্বরূপ বাংলাদেশের পতাকার সাথে যৌথভাবে তাদের দেশের ছবি প্রকাশ করেছিলো কয়েকমাস আগেই।

দুই দেশের মধ্যকার সুন্দর সম্পর্ক বোঝানোর ক্ষেত্রেও অনেক দেশ এ ধরনের ছবি প্রকাশ করে থাকে।

সূত্র: বিবিসি বাংলা (অনলাইন)। 

Leave a Reply

Your email address will not be published.