নতুন নেতৃত্ব যুব ইউনিয়ন ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণে

বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন ঢাকা মহানগরের চতুর্দশ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে উত্তর ও দক্ষিণে নতুন নেতৃত্বে কমিটি নির্বাচিত হয়েছে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন গোলাম রাব্বি খান। সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন শাহীন ভূইঁয়া ও সাংগঠনিক সম্পাদক হয়েছেন জীবন কুমার সাহা।

ঢাকা মহানগর উত্তরে চৌধুরী জোসেন সভাপতি, আসাদুজ্জামান আজিম সাধারণ সম্পাদক ও ইরান মোল্লা সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।

গতকাল (১৩ নভেম্বর) শুক্রবার ‘বিচারহীনতার বিরুদ্ধে-কর্মসংস্থানের দাবিতে জেগে ওঠো সাহসী যৌবন’ -এ স্লোগানকে প্রতিপাদ্য করে রাজধানীর শাহবাগে চতুর্দশ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সম্মেলনের উদ্বোধন করেন সংগঠনের সভাপতি হাফিজ আদনান রিয়াদ ও অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য, নাট্যজন শংকর সাঁওজাল।

উদ্বোধনী সমাবেশ শেষে দুপুরে শোভাযাত্রা বের করেন যুব ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা। শাহবাগ থেকে পল্টনের মুক্তি ভবনে সিপিবি কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয় সেই শোভাযাত্রা।

বিকালের কাউন্সিল অধিবেশন থেকে ঢাকা মহানগর শাখার নতুন নেতৃত্ব নির্বাচিত হয় বলে যুব ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ একতা টেলিভিশনকে জানিয়েছেন।

শাহবাগের উদ্বোধনী সমাবেশে বক্তারা বলেন, দেশে বিপুল জনগোষ্ঠী কর্মহীন হয়ে পড়েছে। দেশের ৭২% মানুষের আয় কমে গিয়েছে। এর মধ্যেই জিনিসপত্রের দাম আকাশ ছোঁয়া। জনজীবনে তীব্র অর্থনৈতিক সংকট। সরকার উন্নয়নের কথা বলছে। কিন্তু সরকারের এ উন্নয়নে জনগণ ভাল নেই। মানুষ আজ নিরাপত্তাহীন। প্রতি মুহূর্তে নারীরা ধর্ষিত হচ্ছে। সরকার একটি ঘটনারও সুষ্ঠু বিচার করতে পারেনি। ফলে এক ধরনের বিচারহীনতার সংস্কৃতি আমাদের সমাজে ভর করেছে।

বক্তারা কর্মসংস্থানের দাবিতে এবং বিচারহীনতার বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তুলতে যুবকদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন যুব ইউনিয়নের ঢাকা মহানগর কমিটির বিদায়ী সভাপতি হাবিব ইমন।

২০১৮ সালের অগাস্টে ত্রয়োদশ সম্মেলনে হাবিব ইমন ঢাকা মহানগরের সভাপতি এবং রাসেল ইসলাম সুজন সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছিলেন।

উল্লেখ্য, এবারই প্রথমবারের বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন ঢাকা মহানগরের উত্তর ও দক্ষিণে দুটি আলাদা কমিটি গঠিত হল। ইতোপূর্বে উত্তর-দক্ষিণ মিলে ঢাকা মহানগরের একটিই কমিটি ছিল।