ধর্ষণ বিষয়ে আদালতের নির্দেশনায় প্রগতিশীল নারী সংগঠনসমূহের ক্ষোভ

ধর্ষণের অভিযোগের ক্ষেত্রে ঘটনার ৭২ ঘন্টার পর পুলিশ যেন মামলা না নেয় আদালতের এমন নির্দেশনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে প্রগতিশীল নারী সংগঠনসমূহ।

১২ নভেম্বর প্রগতিশীল নারী সংগঠনসমূহের সমন্বয়ক ও সিপিবি নারী সেলের আহ্বায়ক লক্ষ্মী চক্রবর্তী, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের সভাপতি রওশন আরা রুশো, শ্রমজীবী নারী মৈত্রীর সভাপতি বহ্নিশিখা জামালি, বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্রের সভাপতি সীমা দত্ত, নারী সংহতির সভাপতি তাসলিমা আখতার লিমা, বিপ্লবী নারী ফোরামের সহ সাধারণ সম্পাদক আমেনা আক্তার এক যৌথ বিবৃতিতে ধর্ষণের অভিযোগের ক্ষেত্রে ঘটনার ৭২ ঘন্টার পর পুলিশ যেন মামলা না নেয় আদালতের এমন নির্দেশনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, বাংলাদেশে ধর্ষণের ক্ষেত্রে দেখা যায় একশটি ঘটনার মধ্যে গড়ে মাত্র ২৩টি ঘটনায় মামলা হয়। প্রভাবশালীদের দাপটে মামলা ও বিচার অনেকক্ষেত্রেই প্রভাবিত হয়। ধর্ষণের অভিযোগের ক্ষেত্রে ঘটনার ৭২ ঘন্টার পর পুলিশ যেন মামলা না নেয় আদালতের এমন নির্দেশনায় অর্থ ও ক্ষমতাধারী অপরাধীরা অসহায়-দরিদ্র ভিক্টিমদের ৭২ ঘন্টা মামলা করতে না দিয়ে পার পেয়ে যেতে পারে। এই নির্দেশনা প্রভাবশালী অপরাধীদের-ই সহযোগিতা করতে পারে। বাংলাদেশে আইন-আদালতও ক্ষমতা ও অর্থের দাপটে প্রভাবিত হয় এর আগেও দেখা গেছে।

এর আগে বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলায় প্রধান আসামি হওয়া এবং নানা ধরনের সংশ্লিষ্টতা সংবাদ মাধ্যমে আসার পরও পুলিশের চার্জশিট থেকে তার নাম বাদ দেওয়া হয়েছে। আদালতের এ ধরণের নির্দেশনা অর্থ ও ক্ষমতাধারী অপরাধীরা তাদের নিজেদের স্বার্থে অপব্যবহার করার সুযোগ পাবে এবং অসহায়, দরিদ্র, প্রত্যন্ত অঞ্চলসহ সামগ্রিকভাবে সকল নিপীড়িত নারীদের দুর্ভোগ আরও বাড়িয়ে দিতে পারে-এ বিষয়গুলো বিবেচনায় নিয়ে এই নির্দেশনা পরিত্যাগ করতে অনুরোধ জানান নেতৃবৃন্দ।

প্রসঙ্গত, ১১ নভেম্বর বনানীর রেইন ট্রি হোটেলে দুই তরুণীকে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত পাঁচ আসামির সবাইকে খালাস এবং ধর্ষণের অভিযোগের ক্ষেত্রে ঘটনার ৭২ ঘন্টার পর পুলিশ যেন মামলা না নেয় এমন নির্দেশনা দিয়েছেন আদালত।

উল্লেখ্য ২০১৭ সালের ২৮ মার্চ জন্মদিনের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানিয়ে অস্ত্রের মুখে ঢাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ৬ মে বনানী থানায় এই পাঁচ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছিল।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.