ধর্ম অবমাননার অভিযোগে চুয়েটে সাবেক ছাত্র ইউনিয়ন নেতা বহিস্কার

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মহানবী (স.) সম্পর্কে কটূক্তি এবং ইসলাম ধর্ম নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করার অভিযোগে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) এক ছাত্রকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। বহিষ্কৃত শিক্ষার্থী মো. মুসাব্বির রায়হান চুয়েটের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ১৩ তম ব্যাচের ছাত্র। তিনি বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের চুয়েট শাখার সাবেক সহসভাপতি।

শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) সকাল ১০টায় চুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল আলমের সভাপতিত্বে অনলাইনে অনুষ্ঠিত ১২২তম একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় তাকে সাময়িক বহিস্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এসময় তাকে কেন আজীবন বহিষ্কার করা হবে না তা ১৫ দিনের মধ্যে জানাতে কারণ দর্শানো নোটিশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল আলম বলেন, ‘ওই শিক্ষার্থীকে বহিস্কার করতে স্টুডেন্ট ডিসিপ্লিনারি কমিটির সুপারিশ ছিল। আমরা একাডেমিক কাউন্সিলে আলোচনা করে সার্বিক বিষয় বিবেচনায় এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি।’

এদিকে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক একতা টেলিভিশনকে বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয়ে মুক্তবুদ্ধি চর্চ্চার অধিকার থাকবে, এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু দিন দিন বিশ্ববিদ্যালয়গুলো সে যায়গা থেকে সরে যাচ্ছে। এটা দুঃখজনক। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। আর দ্রুত সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানাই।”

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত স্টুডেন্ট ডিসিপ্লিনারি কমিটি তাকে বহিষ্কারের সুপারিশ করে।