তিন দফা রিমান্ড শেষে আবার কারাগারে পরীমনি

অভিনেত্রী পরীমনিকে তৃতীয় দফার রিমান্ড শেষে আজ আদালতের উপস্থাপনের পর আদালতের নির্দেশে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আজ শনিবার আদালতে উপস্থাপনের পর তদন্ত কর্মকর্তা আর কোন রিমান্ড না চেয়ে পরীমনিকে কারাগারে পাঠানোর আবেদন করেন।

পরে শুনানি শেষে আদালত তাকে কারাগারে পাঠিয়েছে বলে জানিয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী।

এর আগে সকালে তাকে মাইক্রোবাসে করে কাশিমপুর কারাগার থেকে আদালতে আনা হয়।

উল্লেখ্য, গত ৪ আগস্ট পরীমনিকে তার বনানীর বাসা থেকে আটক করে ওই বাসা থেকে মাদক উদ্ধারের দাবি করে র‍্যাব।

৫ই অগাস্ট আদালতে উপস্থাপনের পর তাকে চারদিনের রিমান্ডে নেয়া হয়।

এই রিমান্ডের মেয়াদ শেষ হবার পর ৯ই অগাস্ট আবারো তাকে আদালতে উপস্থাপন করে পাঁচ দিনের রিমান্ড চায় সিআইডি। তবে আদালত দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।

পরীমনির সঙ্গে একই দিন গ্রেপ্তার হওয়া চিত্র পরিচালক নজরুল ইসলাম রাজকে মাদক মামলায় দু’দিন এবং পর্নোগ্রাফি মামলায় সহযোগী সবুজ আলীসহ চারদিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত।

দু’দিনের রিমান্ড শেষে শুক্রবার আদালতে উপস্থাপনের পর তার জামিন আবেদন নাকচ করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয় আদালত।

পরে সোমবার তার পক্ষ থেকে আবারো জামিনের আবেদন করা হয় যার শুনানির দিন ধার্য ছিলো বুধবার। কিন্তু সেদিনই শুনানির আগে রাষ্ট্রপক্ষ জানায় যে সিআইডি পরীমনিকে আরও পাঁচ দিনের রিমান্ডে চেয়ে আবেদন করেছে।

পরে আদালত বৃহস্পতিবার শুনানির দিন ধার্য করে এবং সেদিন তাকে এক দিনের রিমান্ডে দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালে ফোর্বস ম্যাগাজিনের করা এশিয়ার ১০০ ডিজিটাল তারকার তালিকায় ঠাঁই করে নিয়েছিলেন তিনি।

এদিকে আলোচিত এই চিত্রনায়িকার গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সরব আলোচনা হচ্ছে। এছাড়াও বিভিন্নস্থানে পরীমনির ন্যায়বিচার ও মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ হতে দেখা গেছে।

প্রসঙ্গত, আজ বিকাল ৪টায় রাজধানীর শাহবাগে শিল্পীর পাশে নামের ব্যানারে একটি প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.