টানা চতুর্থ মাসে বাড়ল এলপিজির দাম

নিত্য ব্যবহার্য সিলিন্ডারে বিক্রি হওয়া এলপিজি অর্থাৎ তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাসের দাম বাড়ল টানা চতুর্থ মাস। প্রতি কেজিতে দাম বেড়েছে ২২ শতাংশ।

বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন- বিইআরসি রোববার ভ্যাটসহ প্রতি কেজি এলপিজির দাম ৮৬ টাকা ০৭ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ১০৪ টাকা ৯২ টাকা নির্ধারণ করেছে।

সে অনুযায়ী অক্টোবর মাসে দেশে সবচেয়ে বেশি প্রচলিত ১২ কেজি ওজনের একটি এলপিজি সিলিন্ডারের দাম পড়বে মূসকসহ ১২৫৯ টাকা, যা সেপ্টেম্বরে ১০৩৩ টাকা ছিল।

আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বাড়ায় এবং বেসরকারি বিপণন কোম্পানিগুলোর আবেদনে দেশের বাজারে এ দাম বাড়ানো হয়।

আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রাখতে সৌদি আরমকো কোম্পানির প্রোপেন ও বিউটেনের দামের সঙ্গে সমন্বয় করে প্রতি মাসে এলপিজির নতুন দর ঘোষণা করে আসছে বিইআরসি।

এর মধ্যে বেসরকারি বিপণন কোম্পানিগুলোর আবেদনে এক বছরের মধ্যে দ্বিতীয়বার শুনানি করে পরিচালন ব্যয় বাড়িয়ে নতুন এই মূল্যহার নির্ধারণ করা হল।

কারওয়ানবাজার টিসিবি ভবনে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনে এই শুনানিতে কিছু নিয়মেও পরিবর্তন আনা হয়।

এতদিন আগের মাসের সৌদি সিপি অনুযায়ী নতুন মাসের এলপিজির খুচরা মূল্য নির্ধারিত হত। নতুন নিয়মে চলতি মাসের সৌদি সিপি অনুযায়ী এলপিজির খুচরা মূল্য নির্ধারিত হবে।

নতুন ঘোষণায় আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব যেমন পড়েছ, আবার কোম্পানিগুলোর পরিচালন ব্যয় বৃদ্ধির বিষয়টিও রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.