ঝুমন দাসের মুক্তি ও ডিএসএ বাতিলের দাবি উদীচী’র

ঝুমন দাসের মুক্তি দাবি এবং কুখ্যাত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত করেছে।

গতকাল (০৮ সেপ্টেম্বর) বুধবার বিকাল সাড়ে চারটায় রাজধানীর শাহবাগ চত্ত্বরে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

কেন্দ্রীয় উদীচী’র সংগীত বিভাগের দুটি সমবেত সংগীত এর মধ্যদিয়ে সমাবেশের সূচনা হয়।

“বিচারপতি তোমার বিচার কবে যারা আজ জেগেছে এই জনতা”, “মানবনা এই বন্ধনে, মানবনা এই শৃঙ্খলে” এই গান দু’টি তারা পরিবেশন করে। গান পরিবেশন করে চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের শোভন রহমান ও ঋষিজ শিল্পী গোষ্ঠীর মিজানুর রহমান বুলবুল।

প্রাচ্যনাট পরিবেশন করে নাটক “মোড়ল পুলিশিং”। থিয়েটার ৫২ পরিবেশন করে নাটক “একটি সাহসী ফুল দেখা যায়”, রচনা ও নির্দেশনা মিজানুর রহমান মিজান। বটতলা পরিবেশন করে নাটক “রাতের রানী”, রচনা ও নির্দেশনা কাজী রোকসানা রুমা। আবৃত্তি পরিবেশন করেন মিজানুর রহমান সুমন।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী কেন্দ্রীয় সংসদের সাধারণ সম্পাদক জামসেদ আনোয়ার তপন। বক্তব্য রাখেন সিপিবি’র প্রেসিডিয়াম সদস্য কাফি রতন, ঝুমন দাসের স্ত্রী  সুইটি দাস, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অভিনু কিবরিয়া ইসলাম, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সহ-সভাপতি কাজল দেবনাথ, লেখক ও আইনজীবী ইমতিয়াজ মাহমুদ, উদীচী ঢাকা মহানগর সংসদের সাধারণ সম্পাদক ইকবালুল হক খান, কেন্দ্রীয় সংসদের সদস্য একরাম হোসেন, ছাত্র ইউনিয়নের সহ-সভাপতি অনিক রায়, যুব ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক খান আসাদুজ্জামান মাসুম, সাবেক ছাত্রনেতা, গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক আকরামুল হক, সাংবাদিক ও গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক এফ এম শাহীন। সমাবেশ সঞ্চালনা করেন উদীচীর সহ সাধারণ সম্পাদক সংগীতা ইমাম।

উল্লেখ্য, সারাদেশে উদীচী’র বিভিন্ন জেলা, শাখায় আজকে এই প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.