জামিনে মুক্তি পেয়েছেন সিফাত

পুলিশের গুলিতে নিহত অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খানের সঙ্গে তথ্যচিত্র নির্মাণে যুক্ত থাকা আরেক সহযোগী স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাহেদুল ইসলাম সিফাতও কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পেয়েছেন।

কক্সবাজার জেলা কারাগারের সুপার মো. মোকাম্মেল হোসেন জানান, দুই মামলায় আদালতের জামিন আদেশের কপি হাতে পাওয়ার পর সোমবার (১০ আগস্ট) বেলা ২টা ৫ মিনিটে সিফাতকে মুক্তি দেওয়া হয়।

এর আগে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কক্সবাজারের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতের (টেকনাফ-৩) বিচারক তামান্না ফারাহ টেকনাফ থনায় দুই মামলায় সিফাতের জামিন মঞ্জুর করেন।

সিনহা নিহতের ঘটনায় এবং তার গাড়ি থেকে মাদক উদ্ধারের অভিযোগে পুলিশের দায়ের করা এ মামলা দুটির তদন্তভার আদালত র‌্যাবকে দিয়েছে বলেও জানিয়েছেন সিফাতের আইনজীবী মোহাম্মদ মোস্তফা।

সিনহা ও সিফাতের সঙ্গে তথ্যচিত্র নির্মাণের কাজে কক্সবাজারে থাকা স্ট্যামফোর্ড শিক্ষার্থী শিপ্রা দেবনাথ গতকাল রোববার কক্সবাজার কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পান।