জলবায়ু সম্মেলন শুরু আজ, বিক্ষোভ অব্যাহত

স্কটল্যান্ডের গ্লাসগো শহরে আজ বহু প্রত্যাশিত কপ২৬ জলবায়ু সম্মেলন শুরু হচ্ছে।  আগামী ১২ নভেম্বর পর্যন্ত সম্মেলন চলবে।

বিশ্বের ২০০টি দেশের প্রতিনিধিরা এই সম্মেলনে অংশ নিয়ে জলবায়ু বিষয়ে আলোচনা করবেন।

এদিকে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বিশ্বনেতাদের চাপে ফেলতে বিভিন্ন দেশের পরিবেশ আন্দোলনকর্মীরাও বিক্ষোভ–সমাবেশে যোগ দিচ্ছেন।

গত শনিবার কপ–২৬ সম্মেলনকে সামনে রেখে জলবায়ু পরিবর্তন ঠেকাতে ব্যবস্থা নিতে বিশ্বনেতাদের চাপে ফেলতে গ্লাসগোতে বিক্ষোভ–সমাবেশ করেছেন শত শত মানুষ। সম্মেলনকে সামনে রেখে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশগুলোর মধ্যে এটিই সবচেয়ে বড়।

জলবায়ু পরিবর্তনবিষয়ক আন্দোলনে সাড়া জাগানো সুইডিশ পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গও এদিন সমাবেশে যোগ দেন।

বার্তা সংস্থা এএফপি’র খবরে এসব তথ্য জানানো হয়।

গতকাল ১৮ বছর বয়সী পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ লন্ডন থেকে ট্রেনে করে স্কটল্যান্ডে পৌঁছান। তাঁকে রেলস্টেশন থেকে পুলিশি পাহারায় গ্লাসগোতে নিয়ে যাওয়া হয়। টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে থুনবার্গ বলেন, ‘অবশেষে কপ–২৬ সম্মেলনে যোগ দিতে গ্লাসগোতে এলাম।’ উষ্ণ অভ্যর্থনার জন্য সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

বিভিন্ন দেশের পরিবেশকর্মীরা গ্লাসগোতে ভিড় করছেন। অনেক দূর-দূরান্ত থেকেই মানুষ সম্মেলনস্থলে আসছেন। নিজেদের হতাশার কথা ব্যক্ত করতে অনেকে অনেক পথ হেঁটেও সম্মেলনস্থলে জড়ো হচ্ছেন।

বিক্ষোভকারীরা প্ল্যাকার্ড নিয়ে গ্লাসগোর প্রাণকেন্দ্রে মিছিল করে। প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, ‘শুধু মুখের কথা নয়, পদক্ষেপ চাই’ এবং ‘জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার বন্ধ করুন’। এক্সটিংকশন রেবেলিয়ন নামক সংগঠনের সদস্যরা বিক্ষোভে নেতৃত্ব দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, রোববার এই সম্মেলনের উদ্বোধনী দিন। তবে মূল আলোচনা শুরু হবে ১ নভেম্বর থেকে। এবারের সম্মেলনে চলবে ১২ নভেম্বর পর্যন্ত।

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বিশ্বনেতাদের অংশগ্রহণের এ সম্মেলনকে পুরোপুরি কাজে লাগানোর আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, সবাই প্রশ্ন করছে আমরা এ মুহূর্তটিকে ধরে রাখবো নাকি চলে যেতে দেবো। সেটা আমাদেরিই ঠিক করতে হবে।

গত বছর এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও পরে নভেল করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে তা পিছিয়ে যায়। এটাই যুক্তরাজ্যের আয়োজন করা সবচেয়ে বড় সম্মেলন। কপ শব্দটি কনফারেন্স অব দি পার্টিস এর সংক্ষিপ্ত রূপ। এটি এ ধরনের ২৬তম সম্মেলন।

এরই মধ্যে অনেকেই এসে পৌঁছেছেন সম্মেলনস্থলে। তবে সম্মেলনে যোগদানকারী অনেক বিশ্বনেতা রোমের জি২০ সম্মেলন থেকে আজ বিকেলে গ্লাসগো শহরে পৌঁছাবেন। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও সম্মেলনে যোগ দিতে ঢাকা ছেড়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.