চমস্কি, স্যান্ডার্স, ক্লাইনরা গঠন করলেন ‘প্রগ্রেসিভ ইন্টারন্যাশনাল’

বিভিন্ন দেশের বাম ঘরানার সুপরিচিত একঝাঁক বুদ্ধিজীবী ও রাজনৈতিক নেতা-কর্মীদের উদ্যোগে ‘প্রগ্রেসিভ ইন্টারন্যাশনাল'(পিআই) নামে নতুন একটি আন্তর্জাতিক সংস্থার যাত্রা শুরু হয়েছে। আগামী সেপ্টেম্বরে আইসল্যান্ডে তাদের প্রথম সম্মেলনের ডাক দিয়েছে।

সোমবার ‘প্রগ্রেসিভ ইন্টারন্যাশনাল’ নামের এই সংস্থাটির আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয় বলে জানিয়েছে লাতিন আমেরিকাভিত্তিক সংবাদমাধ্যম তেলেসুর টিভি।

ডেমোক্রেসি ইন ইউরোপ মুভমেন্ট ২০২৫ ও স্যান্ডার্স ইনস্টিটিউটের সহযোগিতায় গঠিত এ সংস্থা ৪০ জনেরও বেশি উপদেষ্টাকে নিয়ে যে অন্তর্বর্তী কাউন্সিল করেছে তাতে অধ্যাপক নোম চমস্কি, লেখক নাওমি ক্লাইন, যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্সের পাশাপাশি আইসল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ক্যাট্রিন ইয়াকভসডটার ও সাবেক গ্রিক অর্থমন্ত্রী ইয়ানিস ভেরাফাকিসের মতো খ্যাতনামা ব্যক্তিরা রয়েছেন।

প্রতিষ্ঠাতা সদস্যদের মধ্যে আরও আছেন লাতিন আমেরিকার বাম-ঘরানার রাজনীতিক হিসেবে পরিচিত একুয়েডরের সাবেক প্রেসিডেন্ট রাফায়েল কোরায়া, ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ফার্নান্দো হাড্ডাড, বলিভিয়ার সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট আলভারো গার্সিয়া লিনেরা, ব্রাজিলের সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী সেলসো আমোরিম।

প্রগ্রেসিভ ইন্টারন্যাশনালের (পিআই) সাধারণ সমন্বয়ক ডেভিড অ্যাডলার বলেছেন, ”এখনকার মতো আন্তর্জাতিক সংহতির প্রয়োজনীয়তা আগে কখনোই হয়নি; আন্তর্জাতিক সংস্থার অনুপস্থিতিও কখনো এতটা ছিল না। একটি আন্তর্জাতিক ফ্রন্টই আমাদের এখনকার সংকটের মাত্রার মুখোমুখি হতে পারে, আমাদের প্রতিষ্ঠানগুলো পুনরুদ্ধার করতে পারে, পরাজিত করতে পারে উদীয়মান কর্তৃত্ববাদী জাতীয়তাবাদকে।”

তেলেসুর জানায়, ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে ডেমোক্রেসি ইন ইউরোপ মুভমেন্ট ২০২৫ (ডিআইইএম ২৫) ও স্যান্ডার্স ইনস্টিটিউটের যৌথভাবে‘দুনিয়ার প্রগতিশীলরা এক হও’ আহ্বানের উপর ভিত্তি করে বিশ্বব্যাপী এ ধরনের একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা গড়ে তোলার পরিকল্পনা শুরু হয়।

সোমবার পিআই-এর উদ্বোধনীতে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ানকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে চমস্কি জানান, কোভিড-১৯ সংকটের ফলে ক্রমবর্ধমান ভয়াবহ অর্থনৈতিক বৈষম্য এবং বিশ্বব্যাপী কট্টর-ডানপন্থিদের উত্থানের কারণই বিশ্বব্যাপী বাম ঘরানার এরকম একটি প্ল্যাটফর্মের প্রয়োজনীয়তা সৃষ্টি করেছে।

চমস্কি বলেছেন, ”স্বৈরতান্ত্রিক উদারনৈতিকতা এক পথে দাঁড়িয়ে আছে। অন্য এক পথে চেষ্টা চলছে কাঠামো ভেঙে ফেলার; যেসব প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামোগুলো তৈরি করা করা হয়েছিল সেগুলো ভেঙে ফেলার। এটা বিশ্বের বেশিরভাগ অংশের বেশিরভাগ জনগোষ্ঠীকেই ভয়াবহ পরিণতির দিকে ঠেলে দেবে। আর এটাই এই মহামারীর উৎস।”

পিআই-এর অন্তর্বর্তী কাউন্সিল সেপ্টেম্বরে আইসল্যান্ডের রেইকেভেকে প্রথম সম্মেলনে মিলিত হবে।

আইসল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ও লেফট-গ্রিন মুভমেন্টের আয়োজনে ওই সম্মেলনে একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ ও সংস্থার সদস্যদের প্রস্তাবিত কৌশলগত নির্দেশনাগুলো পর্যালোচনা করা হবে।

ডেভিড অ্যাডলার বলেছেন, ”কোভিড-১৯ পরবর্তী বিশ্বকে উদ্ধারে প্রগ্রেসিভ ইন্টারন্যাশনাল তার সদস্যদের হাত ধরেই শক্তিশালী হবে। আমাদের দরকার প্রগতিশীল শক্তিগুলোকে নিয়ে একটি শক্তিশালী আন্দোলন গড়ে তোলা।”