চট্টগ্রামে বিআইটিআইডিতে স্বাস্থ্যসেবীদের পিপিই দিয়েছে যুব ইউনিয়ন

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় স্বাস্থ্য সেবায় নিয়োজিতদের সুরক্ষা নিশ্চিতে চট্টগ্রামের ফৌজদারহাটে অবস্থিত বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অফ ট্রপিক্যাল এন্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস এন্ড হসপিটাল (বিআইটিআইডি)-এ চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যসেবীদের পিপিই দিয়েছে বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন।

বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন চট্টগ্রাম জেলা সংসদের উদ্যোগে দ্বিতীয় দফায় শুক্রবার পিপিই হস্তান্তর করা হয়।

পিপিই হস্তান্তরের সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন, চট্টগ্রাম জেলার সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল শিকদার, সহ-সভাপতি সুনন্দন শিকদার এবং সাংগঠনিক সম্পাদক রাশিদুল সামির।

এক বিবৃতিতে বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন চট্টগ্রাম জেলার সংসদের সভাপতি রিপায়ন বড়ুয়া ও সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল শিকদার বলেন, বাংলাদেশসহ সারাবিশ্ব আজ মহা বিপদের সম্মুখীন। করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট মহামারীতে সারা বিশ্ব চরম আতঙ্কগ্রস্ত। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বিরাট অংশ জীবনসংকটে নিপতিত। আক্রান্তদের মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা করা সবচেয়ে জরুরি কাজ। এই পরিস্থিতিতে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছেন চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যসেবীরা । প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হচ্ছে তাদের। নতাদের এই সাহসী কাজে তাঁদের পাশে সমগ্র জনগণকে দাঁড়াতে হবে। তাই সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন, চট্টগ্রাম জেলা দেশে-বিদেশে অবস্থিত সকল সাবেক নেতা-কর্মী, সমর্থক, শুভানুধ্যায়ী এবং বর্তমান সদস্যদের সহযোগিতায় ১ম দফায় চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের নিকট পিপিই হস্তান্তর করেছে, আজ দ্বিতীয় দফায় ফৌজদারহাটে অবস্থিত চট্টগ্রামের করোনা সনাক্তকরন কেন্দ্র বিআইটিআউডিতে পিপিই হস্তান্তর করে।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, পর্যাপ্ত সুরক্ষা ছাড়া করোনাভাইরাসসৃষ্ট কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসার দায়িত্ব পালন করা সম্ভব নয়। তাই চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যসেবীদের পর্যাপ্ত সুরক্ষাসহ উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা ও বিশেষ আর্থিক প্রণোদনা প্রদানে প্রয়োজনীয় ও জরুরি পদক্ষেপ সরকারকেই গ্রহণ করতে হবে। আমরা ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীদের দেশবাসীর পক্ষ থেকে জানাতে চাই যে, আমরা তাঁদের পাশে আছি।