গোপালগঞ্জে বাস-নছিমন সংঘর্ষ, ৫ শ্রমিক নিহত

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে বাসের সঙ্গে নছিমনের সংঘর্ষে ৫ নির্মাণ শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৭ জন। হতাহতরা সবাই নছিমনের যাত্রী ছিলেন।

শুক্রবার ১৪ (ফেব্রুয়ারি) সকালে কাশিয়ানী উপজেলার পোনা নামক স্থানে এ সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতদের মধ্যে চারজনের নাম-পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- কাশিয়ানী উপজেলার তিতা গ্রামের রাফিক মোল্লার ছেলে বদির মোল্লা (২৪), একই গ্রামের বেলায়েত মুন্সির ছেলে সুমন মুন্সি (২০), বজলু ফকিরের ছেলে মিজান ফকির (৪০), আবি মোল্লার ছেলে সিরাজুল ইসলাম মোল্লা (৩০)।

কাশিয়ানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজিজুর রহমান জানান, পোনায় ফিডার সড়ক থেকে একটি নছিমন মহাসড়কে ওঠার সময় ফালগুনী পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে এর সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই একজন মারা যান। কাশিয়ানী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনার পথে আরও দুজনের মৃত্যু ঘটে।

আহত ৯ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ এবং গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। গোপালগঞ্জে নেওয়ার পথে সিরাজুলের মৃত্যু হয় বলে জানান ওসি।

এছাড়া ফরিদপুরে নেওয়ার পর অন্য একজনকে মৃত ঘোষণা করা হয় বলে জানিয়েছেন ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক অঞ্জন কুমার সাহা।

স্থানীয়রা জানান, এই শ্রমিকরা কাশিয়ানী উপজেলার পারুলিয়া ইউনিয়নের চিতা গ্রাম থেকে নছিমনে করে ভবন নির্মাণ কাজ করতে কাশিয়ানীর ভাটিয়াপাড়া গ্রামে যাচ্ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.