খুলনায় পাটকল শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

বকেয়া পাওনা পরিশোধ ও রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল চালুর দাবিতে খুলনার খালিশপুরে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন পাটকল শ্রমিকরা। উল্লেখ্য, দেশে রাষ্ট্রায়ত্ত ২৫টি পাটকল এখন বন্ধ আছে।

আজ (২৩ ডিসেম্বর) বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় খুলনা-যশোর মহাসড়কের নতুন রাস্তা মোড়ে খালিশপুর-দৌলতপুর জুটমিল কারখানা কমিটির উদ্যোগে এই বিক্ষোভ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে শ্রমিকরা পিপলস মোড় থেকে মিছিল নিয়ে নতুন রাস্তা মোড়ে হাজির হন।

বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে বক্তারা বকেয়া পাওনা পরিশোধ ও উৎপাদন বন্ধ থাকা ২৫টি রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল চালু করা না হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন।

সমাবেশ থেকে পাটকল রক্ষায় সম্মিলিত নাগরিক পরিষদের সদস্যসচিব এস এ রশীদ বলেন, ‘সরকার হাজার হাজার শ্রমিকের পেটে লাথি মেরে রাতের অন্ধকারে ২৫টি পাটকল বন্ধ করে দিয়েছে। অথচ রাষ্ট্রের অর্থনীতি সচল রেখেছে যে শ্রমিকরা, তারা আজ বেতন পাচ্ছে না।

কারখানা কমিটির সভাপতি মো. মনির হোসেন মনির সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন গণসংহতি আন্দোলন খুলনা জেলা শাখার সমন্বয়ক মুনীর চৌধুরী সোহেল, দৌলতপুর জুট মিলস কারখানা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ মোফাজ্জেল হোসেন, যশোর-খুলনা আঞ্চলিক বদলি কমিটির আহবায়ক মোঃ ইলিয়াস হোসেন ও সদস্যসচিব আব্দুর রাজ্জাক তালুকদার, শ্রমিকনেতা মো. নূরুল ইসলাম এবং ছাত্র ফেডারেশন খুলনা মহানগর শাখার আহবায়ক আল আমিন শেখ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ২০২০ সালের ৩০ জুন থেকে খুলনা, চট্টগ্রাম ও সিরাজগঞ্জের ৫টি পাটকলের উৎপাদন বন্ধ আছে। এর ফলে দীর্ঘ ১৭ মাস মজুরি না পাওয়ায় শ্রমিকরা এখন মানবেতর জীবনযাপন করছেন। সরকার অভুক্ত এই শ্রমিকদের জীবন-জীবিকা নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে বলেও নেতৃবৃন্দ দাবি করেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.