ক্ষেতমজুরদের স্বার্থ রক্ষায় দুর্বার আন্দোলনের আহ্বান

বাংলাদেশ ক্ষেতমজুর সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির দুদিনব্যাপী বর্ধিত সভা থেকে ক্ষেতমজুরসহ গ্রামীণ মজুরদের স্বার্থ রক্ষায় দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানানো হয়।

শুক্রবার (৬ সেপ্টেম্বর) সকালে মুক্তিভবনের মৈত্রী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি অ্যাড. সোহেল আহমেদ। কেন্দ্রীয় কমিটির রিপোর্ট উত্থাপন করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রেজা।

সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্যে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাকালীন সাধারণ সম্পাদক ও সিপিবি সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, দেশ স্বাধীনের ৫০ বছর হতে চললেও দেশের অধিকাংশ মানুষের সরকার কায়েম হয়নি। বারবার লুটপাট-দুর্নীতিবাজদের কবলে দেশ নিষ্পেষিত হয়েছে।

তিনি ক্ষেতমজুরসহ গ্রামের গরিব মানুষদের ক্ষমতার আন্দোলন শুরু করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, খয়রাতি-ভাতার জন্য আমরা মুক্তিযুদ্ধ করি নাই। সকলের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্যই লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতার স্বপ্ন থেকে বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ অনেক দূরে সরে গেছে। তিনি বলেন. ভিশন মুক্তিযুদ্ধ ৭১’বাস্তবায়ন করে লাখ শহীদের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে হবে।

রিপোর্টের ওপর আলোচনায় দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলার নেতৃবৃন্দ বলেন, ক্ষেতমজুরসহ গ্রামীণ মজুররা আজ অসহায়। তারা বলেন, ধান কাটা ও লাগানোর দুই মাস বাদে বাকি সময় গ্রামে কাজ না থাকারয় এ সকল গরিব মানুষ শহরে কাজের আশায় পরিবার পরিজন নিয়ে অমানবিক জীবনযাপনে বাধ্য হচ্ছে।

বক্তাগণ গ্রামে-গঞ্জে কর্মসংস্থান সৃষ্টি, গ্রামীণ বরাদ্দ লুটপাট বন্ধ ও ন্যূনতম দামে পল্লী রেশনের মাধ্যমে খাদ্যসামগ্রী সরবরাহের দাবি জানিয়ে বলেন, দেশে হাজার হাজার একর খাসজমি, খাস পুকুর বড়লোকের দল দখল করে আছে। অথচ কোটি কোটি ভূমিহীন খোলা আকাশের নীচে বাস করে। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে খাসজমি ভূমিহীনদের মধ্যে বণ্টনের আহ্বান জানান।

হাওরে মাছ ধরার অধিকারের দাবি তুলে নেতৃবৃন্দ বলেন, হাওরের গরিব মানুষ এই মাছ ধরে যাতে জীবন বাঁচাতে পারে তার জন্য ইজারা প্রথা বাতিল করতে হবে।

সভায় আলোচনা করেন দুলাল বিশ্বাস, হারুন আল বারী, আবুল শাহাবুদ্দিন, ইদ্রিস আলী, বলাই শীল, খলিলুর রহমান, আব্দুল হান্নান, আবুল কাসেম, মশিউর রেজা, আব্দুল মজিদ, রাকেশ সরকার, হাবিবুর রহমান, রেজাউল করিম সুইট, শাহজাহান, রৈহিত ইসলাম মিন্টু, আমিনুল ইসলাম পিপুলসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। সভার শুরুতে শোক প্রস্তাব পাঠ করেন আরিফুল ইসলাম নাদিম।

সভায় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহ সভাপতি ডা. ফজলুর রহমান, ছৈয়দ আহমদ, পরেশ কর, মৃন্ময় ম-ল, রফিকুল ইসলাম, অ্যাড. চিত্তরঞ্জন গোলজার, সহ সাধারণ সম্পাদক অর্ণব সরকার, নির্বাহী কমিটির সদস্য মোতালেব হোসেন, অনিরুদ্ধ দাশ অঞ্জন, আরিফুল ইসলাম নাদিমসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। সভায় দ্বিতীয় দিনে দাবি আদায়ে বিভিন্ন আন্দোলন-কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.