কোভিভ-১৯: ভারতে মৃত্যু-শনাক্তের নতুন রেকর্ড আজও

ভারতে গত ২৪ ঘন্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও তিন লাখ ৩২ হাজার ৭৩০ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে।

এটিই এখন এখন পর্যন্ত দেশটিতে ও বিশ্বে একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত।

গত ১৫ এপ্রিল থেকেই দেশটিতে দৈনিক দুই লাখের বেশি রোগী শনাক্ত হচ্ছে। এর মধ্যে আজ টানা দ্বিতীয় দিনের মতো দৈনিক শনাক্তের সংখ্যা তিন লাখেরও বেশি।

ভারতে এখন পর্যন্ত মোট এক কোটি ৬২ লাখ ৬৩ হাজার ৬৯৫ জন শনাক্ত হয়েছেন। সংক্রমণের দিক থেকে বিশ্বের মধ্যে ভারতের অবস্থান বর্তমানে দ্বিতীয়তে।

রয়টার্সের তথ্য অনুযায়ী, গত জানুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে দুই লাখ ৯৭ হাজার ৪৩০ জন শনাক্ত হয়। এরপর আজ বিশ্বের মধ্যে ভারতে একদিনে সর্বোচ্চ সংখ্যক রোগী শনাক্ত হলো।

এদিকে ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও দুই হাজার ২৬৩ জন। এটিই এখন পর্যন্ত দেশটিতে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু।

করোনায় এ পর্যন্ত ভারতে মারা গেছেন এক লাখ ৮৬ হাজার ৯২০ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও এক লাখ ৩৭ হাজার ১৮৮ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন এক কোটি ৩৬ লাখ ৪৮ হাজার ১৫৯ জন।

আজ (২৩ এপ্রিল) শুক্রবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি মহারাষ্ট্রে। এরপর রয়েছে কেরালা, কর্ণাটক, তামিল নাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ, উত্তর প্রদেশ ও দিল্লি। গত ২৪ ঘণ্টায় মহারাষ্ট্রে শনাক্ত হয়েছেন ৬৭ হাজার ১৩ জন।

দেশটিতে মোট শনাক্ত এক কোটি ৬২ লাখ ৬৩ হাজার ৬৯৫ জনের মধ্যে বর্তমানে আক্রান্ত রয়েছেন ২৪ লাখ ২৮ হাজার ৬১৬ জন।

ভারতে এখন পর্যন্ত সাড়ে ১৩ কোটি মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে এনডিটিভির প্রতিবেদনে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৩০ জানুয়ারি ভারতে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টারের তথ্য অনুযায়ী, সংক্রমণের দিক থেকে বর্তমানে বিশ্বে ভারতের অবস্থান দুই নম্বরে। ভারতের আগে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও পরে ব্রাজিল।

জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ কোটি ৪৭ লাখ ৫৭ হাজার ১৪৫ জন এবং মারা গেছেন ৩০ লাখ ৭২ হাজার ৩০৯ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন আট কোটি ৩১ লাখ ২৮ হাজার ১৭৩ জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.