কাল থেকে পণ্যবাহী ও গণপরিবহন ধর্মঘটের ঘোষণা

গণপরিবহন ও পণ্যবাহী যানবাহন বন্ধের ঘোষণা দিয়েছেন পরিবহন খাতের মালিক-শ্রমিকেরা।

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার অথবা ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে পণ্যবাহী পরিবহন বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন মালিক-শ্রমিকরা।

আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা না দিলেও আগামীকাল শুক্রবার সকাল ছয়টা থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য এসব পরিবহন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা।

এর আগে গতকাল বুধবার মধ্যরাত থেকে ডিজেলের মূল্য লিটারপ্রতি ১৫ টাকা বৃদ্ধি করেছে সরকার।

পরিবহন সূত্রগুলো বলছে, জ্বালানি তেলের নতুন মূল্যহার কার্যকর হওয়ার পর পরিবহন খাতের বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা নিজেদের মধ্যে বৈঠক করেছেন। এসব বৈঠক থেকেই ভাড়া বৃদ্ধি না করার ঘোষণা দেওয়ার আগপর্যন্ত পরিবহন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

তবে অধিকাংশ সংগঠনের নেতারা সরকারপন্থী রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। তাই তাঁরা আনুষ্ঠানিকভাবে ধর্মঘট ঘোষণা করতে চান না। অনানুষ্ঠানিকভাবে বাস, ট্রাকসহ বাণিজ্যিক যানবাহন না চালানোর সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন এবং বাংলাদেশ ট্রাক-কভার্ড ভ্যান ড্রাইভার ইউনিয়ন বলেছে, দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রত্যাহার না হলে শুক্রবার ভোর ৬টা থেকে তারা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটে যাবেন।

আর বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন বলেছে, তারা ভাড়া বাড়ানোর একটি প্রস্তাব তৈরি করেছে। গাড়ি চালানো বন্ধ হবে কি না, সে সিদ্ধান্ত হবে বিকালে।

এদিকে তেলের দাম বাড়ায় পরিবহনের ভাড়া বাড়ানোর কোনো সরকারি ঘোষণা এখনও না এলেও অনেক এলাকায় মালিকরা নিজেরাই নিজেদের মার্জি মাফিক ভাড়া বাড়িয়ে দিয়েছেন বলে অভিযোগ আসছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.