ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী)’র সভাপতিসহ কেন্দ্রীয় ৭ নেতার দল ত্যাগ

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির (মার্কসবাদী) সভাপতি নূরুল হাসান, কেন্দ্রীয় মিডিয়া সেলের প্রধানসহ সাত নেতা দলের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করেছেন।

দুই বাম দলের ঐক্য নিয়ে ভিন্ন মত দিয়ে ‘ক্ষুদ্র বাম সংকীর্ণ চিন্তা’র অভিযোগ তুলে তারা আনুষ্ঠানিকভাবে দল ত্যাগ করেন বলে জানিয়েছেন।

পার্টির কেন্দ্রীয় মিডিয়া সেল থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বৃহত্তর কমিউনিস্ট ঐক্য গঠন প্রচেষ্টার নীতিগত অবস্থান থেকে সরে পার্টি নেতৃত্বের একাংশের ক্ষুদ্র একটি বাম সংকীর্ণ চিন্তায় আঞ্চলিক গ্রুপের সাথে একীভূত হওয়ার অগঠণতান্ত্রিক উপায়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কবাদী) থেকে সভাপতি নুরুল হাসানসহ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সৈয়দ মজনুর রহমান (চুয়াডাঙ্গা), সিরাজুমুনীর (ঢাকা মহানগর), তপন সাহা চৌধুরী (ময়মনসিংহ), বজলুর রহমান (বরিশাল), এনায়েত করিম ফারুক (বরিশাল) ও বসুনিয়া হাবিব (পঞ্চগড়) দলের সভ্যপদ প্রত্যাহার করছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, এর আগে পার্টির উপদেষ্টা বিমল বিশ্বাস একই প্রশ্নে ভিন্নমত প্রকাশ করে সভ্যপদ প্রত্যাহার করেন। আর সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য মনোজ সাহা আনুষ্ঠানিকভাবে দলের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন না করলেও মতভিন্নতার কারণে নিস্ক্রিয় হয়ে আছেন।

উল্লেখ, বাংলাদেশের ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির (মার্কসবাদী) ঐক্যের জন্য গত ৩০ অক্টোবর একটি সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী) যশোর জেলা কার্যালয়ে এক যৌথ সভা থেকে এই কমিটি গঠন করা হয়।

দুই পার্টির ঐক্যের লক্ষ্যে গঠিত এই কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক করা হয়েছে ইকবাল কবির জাহিদ ও মোশারফ হোসেন নান্নুকে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন আব্দুস সাত্তার, রণজিৎ চ্যাটার্জি, শামিম ইমাম এবং তুষার কান্তি দাস, মনোজ সাহা, অনিল বিশ্বাস ও জিল্লুর রহমান ভিটু।

Leave a Reply

Your email address will not be published.