এমসি কলেজ অভিমুখে ধর্ষণবিরোধী পদযাত্রা

সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে দলবেঁধে গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে প্রগতিশীল ছাত্রজোট সিলেট জেলার উদ্যোগে শহীদমিনার-এমসি কলেজ অভিমুখে ধর্ষণবিরোধী পদযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দ্রুত বিচার ট্রাইবুনালে ধর্ষকদের সর্বোচ্চ বিচার, এমসি কলেজে গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করা, কলেজ প্রশাসনের দায়িত্ব অবহেলাকারী কলেজ সুপারের অপসারণ এবং মদদদাতাদের আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবিতে প্রগতিশীল ছাত্রজোট সিলেট জেলার উদ্যোগে এই কর্মসূচি পালিত হয়। উক্ত কর্মসূচিতে জেলার প্রগতিশীল ছাত্রজোট অন্তর্ভূক্ত সংগঠণসমূহের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

গত ২৬ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ৯টার দিকে টিলাগড় এলাকার এমসি কলেজে স্বামীর সাথে বেড়াতে আসা ওই গৃহবধূকে ক্যাম্পাস থেকে তুলে ছাত্রাবাসে নিয়ে ধর্ষণ করেন কয়েকজন ছাত্রলীগ কর্মী।

এ ঘটনায় পরদিন সকালে এ গৃহবধূর স্বামী বাদী হয়ে শাহপরাণ থানায় ছাত্রলীগ কর্মী সাইফুর রহমানকে প্রধান আসামি করে নয় জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলার আসামিরা হলেন, এমসি কলেজ ছাত্রলীগ কর্মী সাইফুর রহমান, কলেজের ইংরেজি বিভাগের মাস্টর্সের ছাত্র শাহ মাহবুবুর রহমান রনি, মাহফুজুর রহমান মাছুম, অর্জুন লস্কর, বহিরাগত ছাত্রলীগ কর্মী রবিউল ও তারেক আহমদ। এছাড়া অজ্ঞাত আরো তিনজনকে আসামি করা হয়েছে।

শাহপরাণ থানার ওসি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী জানান, এ পর্যন্ত মামলায় এজহারনামীয় ছয়জনসহ আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সবাইকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিয়েছেন আদালত।

এরমধ্যে তিনজনকে রিমান্ড শেষে শুক্রবার কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গত শুক্রবার মামলার তিন আসামি সাইফুর রহমান, অর্জুন লস্কর ও রবিউল ইসলাম আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।