এমসি কলেজে ধর্ষণের ঘটনায় অধ্যক্ষ ও হোস্টেল সুপারকে বরখাস্তের নির্দেশ হাইকোর্টের

সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে তরুণী ধর্ষণের ঘটনায় অবহেলার কারণে কলেজের অধ্যক্ষ সালেহ আহমেদ ও হোস্টেল সুপার জীবন কৃষ্ণ আচার্যকে বরখাস্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

আজ (০২ জুন) বুধবার বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার সমন্বয়ে গঠিত ভার্চ্যুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন।

রায় পাওয়ার সাত দিনের মধ্যে ওই দুজনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় কার্যধারা শুরু করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আইনসচিব, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারের প্রতি ওই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এর আগে, আদালতের আদেশে গঠিত কমিটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, ‘সিলেটের এমসি (মুরারি চাঁদ) কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষণের পেছনে মূলত হোস্টেল সুপার ও প্রহরীদের দায়িত্বে অবহেলা ছিল। প্রতিষ্ঠানের প্রধান হিসেবে ওই কলেজের অধ্যক্ষও কোনোভাবে ওই ঘটনার দায় এড়াতে পারেন না।’

প্রসঙ্গত, গত বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর রাতে সিলেট নগরীর টিলাগড় এলাকা থেকে স্বামীসহ এক তরুণীকে তুলে নিয়ে এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে ছাত্রলীগের একদল কর্মীর বিরুদ্ধে। ওই তরুণীর স্বামী এ ঘটনায় ছয়জনের নাম উল্লেখ করে মোট নয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। করোনা পরিস্থিতির মধ্যে বন্ধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্রাবাস দখল করে সংঘটিত এমন ঘটনায় দেশজুড়ে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.