ইসি’র বড় আওয়াজ ফাঁকা আওয়াজে পরিণত হয়েছে –কমরেড প্রিন্স

পঞ্চগড়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় রুহিন হোসেন প্রিন্স

“কুমিল্লায় নির্বাচনে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) আওয়াজ বড় ছিল, তবে কুমিল্লার একজন সংসদ সদস্যের (এমপি) কানে এ আওয়াজ পৌঁছাতে না পারায় তা ফাঁকা আওয়াজে পরিণত হয়েছে। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সব এমপি বহাল থাকলে এই আওয়াজই থাকবে না”।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সাধারণ সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্স পঞ্চগড়ে প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় এ মন্তব্য করেন।

গতকাল (১৬ জুন ২০২২), বৃহস্পতিবার বেলা ৩টায় পঞ্চগড় প্রেসক্লাবে এ মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়। এসময় পঞ্চগড় প্রেসক্লাবের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ অসংখ্য সাংবাদিক ও বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সাধারণ সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্স বলেন, বাংলাদেশে এটা প্রমাণিত হয়ে গেছে, কোনো দলীয় সরকারের অধীন ভালো নির্বাচন হতে পারে না। সে যে সরকারই হোক। এ জন্য জাতীয় নির্বাচনের সময় নির্দলীয় তদারকি সরকারের হাতে ক্ষমতা তুলে দিতে হবে, যারা রুটিন কাজ করবে। তারা কী রুটিন কাজ করবে, তা সংবিধানে লিপিবদ্ধ করতে হবে।

তিনি বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশে অবাধ–নিরপেক্ষ নির্বাচন দেখতে চাই। এ জন্য সংখ্যানুপাতিক পদ্ধতিসহ নির্বাচনব্যবস্থাকে ঢেলে সাজাতে হবে। টাকার খেলা, পেশিশক্তি, সাম্প্রদায়িক ও আঞ্চলিক প্রচারণা এবং প্রশাসনিক কারসাজি থেকে নির্বাচনকে মুক্ত রাখতে হবে। সেই সঙ্গে জাতীয় সংসদ বহাল রেখে ভালো নির্বাচন হতে পারে না। সে জন্য নির্বাচনের আগে সংসদ ভেঙে দিতে হবে এবং “না” ভোট দেওয়ার সুযোগ রাখতে হবে।’

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের বিষয়ে সিপিবির সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের নির্বাচন নিয়ে নির্বাচন কমিশন অনেক বড় আওয়াজ দিয়েছিল। তাদের এই বড় আওয়াজ কুমিল্লার একজন সংসদ সদস্যের কান পর্যন্ত পৌঁছাল না। ফলাফল আমরা জানি। তাহলে জাতীয় নির্বাচনে যদি ৩০০ আসনে এমপিরা বহাল থাকেন, সেই সঙ্গে সংরক্ষিতসহ সাড়ে ৩০০ এমপির কানে কীভাবে আওয়াজ পৌঁছাবেন, এটা বাংলাদেশের মানুষের কাছে বোধগম্য না।’

সিপিবি সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচনের আগে সংসদ ভেঙে দিতে হবে এবং ‘না’ ভোট দেওয়ার সুযোগ রাখতে হবে।

নির্বাচনের ইভিএম পদ্ধতি নিয়ে রুহিন হোসেন বলেন, ‘ইভিএম নিয়ে আমরা বলেছি যে ইভিএমে আমি ভোট দিলে তো আমাকে অন্তত একটা কাগজ দিতে হবে। প্রমাণ থাকতে হবে আমি ভোট দিলাম, কোথায় ভোট দিলাম। তাহলে পুনঃগণনার সুযোগ থাকবে। এর আগের অনেক নির্বাচন কমিশনারও বলেছেন যে ইভিএম খারাপ না। কিন্তু এর মধ্যে নানা সমস্যা থাকে, মানুষের নানা মত থাকে। এসবের সমাধান না করে যদি বাণিজ্যিক চিন্তা থেকে এসব করেন, তাহলে তার গ্রহণযোগ্যতা সব সময় পায় না। ইভিএমে আমরা সর্বশেষ কুমিল্লার নির্বাচনের ফলাফল প্রশ্নবিদ্ধ দেখলাম।’

সম্প্রতি হওয়া আগাম বৃষ্টিতে পঞ্চগড়ের রবি শস্যের ক্ষতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, পঞ্চগড়ে অতিবৃষ্টিতে বাদামের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। চা পাতার নায্য দাম চাষীরা পাচ্ছেন না। কৃষককে বাঁচাতে তাদের ক্ষতিপূরণ দেয়ার দাবি জানান তিনি।

রুহিন হোসেন বলেন, ‘১৯৯০ সালে “আমার ভোট আমি দেব যাকে খুশি তাকে দেব”—এই স্লোগান নিয়ে এই পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া থেকেই পদযাত্রা (পায়ে হেঁটে) করে ২৩ দিনে ঢাকায় পৌঁছেছিলাম। আমরা এখনো আন্দোলনের মধ্যেই আছি। আমাদের দাবি না মানলে মানুষের ভোট ও ভাতের অধিকার নিশ্চিত করতে আগামী অক্টোবর-নভেম্বর মাসে আবারও আমরা দেশের মানুষকে সঙ্গে নিয়ে তেঁতুলিয়া, টেকনাফসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পদযাত্রা করে ঢাকায় যাব।’

সিপিবি, পঞ্চগড় জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফিরোজা খন্দকার চামেলীর সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় সিপিবির পঞ্চগড় জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল আলম, সদস্য এম এ হান্নান, শফিকুল ইসলাম, রেহানা আক্তার, রাম কিশোর সরকার, লিহাজ উদ্দিন, পঞ্চগড় সদর উপজেলা শাখার সভাপতি এ টি এম মাহমুদুল আক্তার, সাধারণ সম্পাদক আনছারুল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

স্থানীয় সাংবাদিক ও সুধীজনের অপর এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ব্যবস্থা বদল ছাড়া দেশ ও দেশের সাধারণ মানুষের স্বার্থ রক্ষা করা যাবে না।

সিপিবি রাজনীতিতে তাঁর নীতিনিষ্ঠ অবস্থান বজায় রেখে বাম জোট, অপরাপর বাম গণতান্ত্রিক দল, সংগঠন ব্যাক্তিদের নিয়ে দ্বি-দলীয় ধারার বাইরে বিকল্প শক্তি সমাবেশ গড়ে তুলবে।

এর আগে রুহিন হোসেন প্রিন্স সকাল ১১ টায় পার্টির পঞ্চগড় জেলা কমিটির বর্ধিত সভায় যোগ দেন।

বিকেলে পঞ্চগডের তেঁতুলিয়ায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্স তেঁতুলিয়ার চা শিল্পের দুরবস্থায় উৎকণ্ঠা প্রকাশ করে, তেঁতুলিয়ার চা শিল্প, চাষী-দিনমজুর বাঁচাতে সমন্বিত উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.