পিরোজপুরের জেলা জজকে তাৎক্ষণিক বদলি নিয়ে হাইকোর্টের রোল

আওয়ামী লীগ নেতা ও পিরোজপুর সদরের সাবেক এমপি আউয়াল এবং তার স্ত্রীর জামিন খারিজের পর পিরোজপুর জেলা জজ আবদুল মান্নানকে তাৎক্ষণিক বদলির আদেশ কেন বেআইনি ও আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

এ বিষয়ে পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন নজরে নিয়ে আসার পর তা আমলে নিয়ে বুধবার (৪ মার্চ) হাইকোর্টের বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ স্বপ্রণোদিত হয়ে (সুয়োমোটো) এ রুল জারি করেন।

পিরোজপুরের এক সাবেক এমপির জামিন নামঞ্জুর ও বিচারককে প্রত্যাহার নিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন তুলে ধরে বিষয়টি আদালতের নজরে আনেন আইনজীবী ব্যারিস্টার আব্দুল কাইয়ুম ও ইউনুছ আলী আকন্দ। পরে সিনিয়র এক আইনজীবীর মতামত নিয়ে আদালত রুল জারি করেন।

আগামী বুধবার রুলের শুনানির জন্য দিন ঠিক করেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাসগুপ্ত।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার (৩ মার্চ) পিরোজপুর জেলা ও দায়রা জজ মো. আবদুল মান্নানের আদালত দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় পিরোজপুর-১ (নাজিরপুর, পিরোজপুর সদর ও নেছারাবাদ) আসনের সাবেক এমপি এবং জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কে এম এ আউয়াল ও তার স্ত্রী জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী লায়লা পারভীনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এরপরই এক আদেশে ওই জজকে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.