আবেদন ফি প্রদানকারী সকল শিক্ষার্থীকে পরীক্ষার সুযোগের দাবিতে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন

২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের আবেদন ফি প্রদানকারী সকল শিক্ষার্থীকে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগের দাবিতে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি প্রদান ও মানববন্ধন-সমাবেশ করেছে ছাত্র ইউনিয়ন কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় সংসদ।

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) বেলা ১ টায় এই মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, একজন শিক্ষার্থী শুধুমাত্র পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন কিনা সেই যোগ্যতা জানার জন্য ১০০০ টাকা ফি কখনোই যোক্তিক ও মানবিক হতে পারে না। তাছাড়া যে বিশ্ববিদ্যালয়ের নামের সাথে কৃষি জড়িত সেখানে একজন কৃষক, শ্রমিক, মেহনতি গরীব মানুষের জন্য এই ফি প্রদান করেও পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ না পাওয়া অবিচার। যেহেতু ৬ টা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে তাই ৭৫ হাজার শিক্ষার্থীকে সুযোগ দেয়া সম্ভব। এই গুচ্ছ প্রক্রিয়ার প্রথম বারে বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে আমাদের দৃষ্টান্ত স্থাপন করার সুযোগ আছে।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, অর্ধেকেরও বেশি শিক্ষার্থী ফি দেয়ার পরও পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারছে না তা এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হিসেবে তাদের জন্য লজ্জার এবং সেই দায় থেকেই সকল শিক্ষার্থীকেও আন্দোলনে যোগ দেয়ার আহবান জানান।

উল্লেখ্য, এই প্রথম বার দেশের ছয়টি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নিতে যাচ্ছে। এতে আবেদন করেন ৭৫ হাজার শিক্ষার্থী। আবেদনের যোগ্যতা ছিল ৪র্থ বিষয় বাদে ৭ পয়েন্ট এবং ফি ছিল ১০০০ টাকা। গত পরশু নির্বাচিতদের তালিকায় দেখা যায় সর্বনিম্ন সিজিপিএ ৯.১৫। এর ফলে বাদ পড়ে প্রায় ৪০ হাজার শিক্ষার্থী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.