অবিলম্বে অ্যাড. সুমনের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় প্রত্যাহারের দাবি সিপিবির

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সিলেট জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড অ্যাডভোকেট আনোয়ার হোসেন সুমনের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে মিথ্যা মামলায় দায়ের করায় তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন সিপিবি’র কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

শুক্রবার (২২ মে) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় অনলাইনে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র ‘কোভিড-১৯ রেসপন্স টিমে’র এক সভায় এই দাবি জানান নেতৃবৃন্দ।

সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় অংশ নেন সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম, সহকারী সাধারণ সম্পাদক কাজী সাজ্জাদ জহির চন্দন, প্রেসিডিয়াম সদস্য লক্ষী চক্রবর্তী, রফিকুজ্জামান লায়েক, মিহির ঘোষ, আবদুল্লাহ ক্বাফী রতন, অনিরুদ্ধ দাশ অঞ্জন, কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদক আহসান হাবিব লাবলু, রুহিন হোসেন প্রিন্স, কেন্দ্রীয় কমিটির কোষাধ্যক্ষ মাহবুবুল আলম, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ডা. ফজলুর রহমান।

সভায় নেতৃবৃন্দ জানান, সুনামগঞ্জ জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার গ্রাম্য গোষ্ঠী দ্বন্দকে কেন্দ্র করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতৃত্বের একাংশের অতি উৎসাহ, প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ মদদে কমরেড আনোয়ার হোসেন সুমনের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়। কথিত ঘটনার দিন গত ১১ মে, সোমবার তিনি সিলেট মহানগরে অবস্থান করে সিপিবি ও বাম গণতান্ত্রিক জোটের সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি পেশের কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন ও নেতৃত্ব দেন। এই সংক্রান্ত সংবাদ বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় প্রকাশিত হয়েছে।

নেতৃবৃন্দ জানান, কর্মসূচি শেষ করে সিলেট মহানগর থেকে ৭০ কিলোমিটার দূরে সুনামগঞ্জ জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রামের ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকা কষ্টকল্পিত। ক্ষমতাসীন দলের নেতারা সম্পূর্ণ অসৎ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে কমরেড আনোয়ার হোসেন সুমনকে হেনস্তা ও হয়রানি করার জন্য এই জঘন্য অপতৎপরতায় লিপ্ত হয়েছে।

নেতৃবৃন্দ এ ধরনের অপতৎপরতায় তীব্র নিন্দা জানান এবং অবিলম্বে কমরেড অ্যাডভোকেট আনোয়ার হোসেন সুমনের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জন্য সরকারের নিকট দাবি জানান।