‘অবাধ্য সাহসে আলোর দিশায়’ ছাত্র ইউনিয়নের জাতীয় সম্মেলন কাল

আর মাত্র এক দিন পরেই দেশের সর্ববৃহৎ বাম-প্রগতিশীল, অসাম্প্রদায়িক ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের ৪০তম জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হবে আগামীকাল।

“আলোকে চিনে নেয় আমার অবাধ্য সাহস” -এ মুলমন্ত্রকে ধারণ করে আগামীকাল (১৯ নভেম্বর) বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবাদবিরোধী রাজু স্মারক ভাস্কর্যে সংগঠনটি ৪০তম জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হবে।

আন্দোলনরত পাটকল ও চা শ্রমিকরা ছাত্র ইউনিয়নের ৪০তম সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন। সম্মেলন পরবর্তী কাউন্সিল অধিবেশন চলবে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত। কাউন্সিল অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে রাজধানীর তোপখানা রোডস্থ বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) অডিটোরিয়ামে।

বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের ৪০তম জাতীয় সম্মেলন প্রস্তুতি পরিষদের আহ্বায়ক মনীষী রায় একতা টেলিভিশনকে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

মনীষী রায় আরো জানান, “করোনাকালীন সময়ে এবার সীমিত পরিসরে সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা ও স্বাস্থ্যবিধির কারণে সারাদেশ থেকে ছাত্র জমায়েত করা হবে না। পরিবর্তে সারাদেশের প্রতিটি ইউনিট থেকে প্রতিনিধি-পর্যবেক্ষকদের উপস্থিতিতে এবারের এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।”

“দেশের এরকম একটা অন্ধকার সময়ে, দুর্যোগকালীন সময়ে ছাত্র ইউনিয়নের এ সম্মেলন থেকে আমরা আমাদের সকলের ভেতরে লুকিয়ে থাকা অবাধ্য সাহসকে জেগে ওঠার আহ্বান জানিয়েছি। যে সাহস আমাদেরকে ঘোর অমানিষা দূর করে আলোকে চিনে নিতে শেখাবে।”- বলেন মনীষী রায়।

উল্লেখ্য, ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের চতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে অসাম্প্রদায়িক-প্রগতিশীল এ সংগঠনটি সৃষ্টির সূচনালগ্ন থেকেই ছাত্রদের অধিকার আদায়ের আন্দোলন থেকে শুরু করে জাতীয় যেকোন দুর্যোগে সামনের কাতারে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে আসছে। এখনো ছাত্রস্বার্থ ও জাতীয় স্বার্থের যেকোন আন্দোলনের পথিকৃত সংগঠন হিসেবে ছাত্র ইউনিয়নের নামটিই উচ্চারিত হয়।

আগামী ১৯-২০ নভেম্বর দুইদিনব্যাপি বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের ৪০তম জাতীয় সম্মেলন ও কাউন্সিল।

শেয়ার করুন

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin